এখন পড়ছেন
হোম > বিনোদন > সামনে এল ব্যাঙ্ক জালিয়াতির নতুন পন্থা! জানুন, সাবধান হোন ও অন্যকে সাবধান করুন

সামনে এল ব্যাঙ্ক জালিয়াতির নতুন পন্থা! জানুন, সাবধান হোন ও অন্যকে সাবধান করুন

আজকের অনলাইনের জামানায় দুষ্ট বুদ্ধি সম্পন্ন হ্যাকাররা ওঁৎ পেতে বসে আছে, কিভাবে আপনার ডেবিট কার্ড, ক্রেডিট কার্ড বা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের ডিটেলস জেনে নিয়ে – আপনার কষ্টার্জিত টাকা নিজেরা হস্তগত করে নেবে! মানুষকে বোকা বানিয়ে, ওটিপি হাতিয়ে নিয়ে এই ধরনের অসাধু কাজের অনেকগুলো পন্থাই মোটামুটি মানুষের জানা হয়ে গেছে – আর তাই সাধারণ মানুষ আজ অনেক বেশি সচেতন।

কিন্তু, যাদের কাজই দুষ্ট বুদ্ধি কাজে লাগিয়ে মানুষের ক্ষতি করা – তারা কি আর চুপ করে বসে থাকবে? তাই রোজই নিত্যনতুন পদ্ধতি ‘আবিষ্কার’ করে মানুষকে ধোঁকা বানানোর কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। জনৈক পাঠক আমাদের জানালেন এমনই এক নতুন পন্থার! একটু ঠান্ডা মাথায়, সবদিকটা খতিয়ে দেখে অল্পের জন্য লুটেরাদের হাত থেকে বেঁচে গেছেন তিনি। আর তাই, এগিয়ে এসে শেয়ার করেছেন নিজের অভিজ্ঞতার কথা – যাতে এই পন্থায় আর কাউকে ঠকতে না হয়।

কি হয়েছিল ঠিক? জেনে নিন তাঁরই জবানিতে। পুরো ঘটনা পড়ে সাবধান হোন, আর আপনার পরিচিত জনকেও বিস্তারিত জানিয়ে সাবধান করুন। যাতে অসাধু ব্যক্তিদের হাতে আপনার প্রিয় মানুষের টাকা চুরি হয়ে না যায়! জেনে নিন পুরো ঘটনা –

গতকাল প্রায় দুপুর সাড়ে বারোটা নাগাদ অচেনা নম্বর থেকে ফোন এলো।ফোন তুলতেই সুরেলা সুমধুর কন্ঠে একটি মহিলা জানালো – খুউব দুঃখিত স্যার, আমি অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করছিলাম, ভুলকরে আমার মোবাইলের নং টার জায়গায় আপনার মোবাইলের নং টা দেওয়া হয়ে গেছে! কারণ, আপনার আর আমার মোবাইল নং টায় অনেক মিল আছে। তাই ভুল করে ফেলেছি, এটা টাইপিং মিসটেক। একটু পরেই আপনার মোবাইলে একটা ওটিপি আসবে – প্লিজ ওটা মেসেজ বা রিং করে দেবেন? নতুন করে রেজিস্ট্রেশন করতে গেলে আবার ২৪ ঘন্টা অপেক্ষা করতে হবে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

আমার মোবাইলে সত্যিই একটা ওটিপি এলো। একটু পরেই অন্য আরেকটা নং থেকে আবার সেই সুরেলা কন্ঠি – স্যার, ওটিপি টা এসেছে, প্লিজ আমাকে জানান। হঠাৎ মাথায় এলো তাই, বললাম যে ফোন নং টা দিতে গিয়ে আমার নং টা দিয়েছেন সেটা থেকে একটা কল করুন তো! জবাব এলো – ঐ নং টায় এক্কেবারে ব্যালেন্স নেই! তাই এই নং থেকে কল করছি। আপনি কি একজন মহিলাকে অবিশ্বাস করছেন? লাইনটা বন্ধ হয়ে গেলো।

মেসেজ এলার্ট দিয়ে আমার ব্যাঙ্কের মেসেজ এল – “আপনি কি আপনার নেট ব্যাঙ্কিং এর পাসওয়ার্ড চেন্জ এর জন্য রিকোয়েস্ট করেছেন? তাহলে পাঠানো ওটিপি টা ব্যাবহার করুন। না রিকোয়েস্ট করে থাকলে নিচে দেওয়া লিংকে ক্লিক করুন”। মাথা গরম হয়ে গেলো, সঙ্গে সঙ্গে প্রথম ও দ্বিতীয় নং এ ফোন করলাম, জবাব এলো – সার্ভিস এরিয়ার বাইরে তাই যোগাযোগ সম্ভব নয়। এটা একটা নতুন ভাবে ব্যাঙ্ক জালিয়াতির প্রচেষ্টা। আমি দুটো নং ই ব্যাঙ্কে জানিয়ে দিয়েছি। তাই, সবারই কাছে অনুরোধ এই খবরটা যত জনকে পারেন ফরোয়ার্ড করুন ও নিরাপদে থাকুন।

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!