এখন পড়ছেন
হোম > আন্তর্জাতিক > মাত্র দেড় লক্ষ খরচেই তৈরী সব নথি, বাংলাদেশী জঙ্গিদের ভারতে প্রবেশে ঘুম উড়ছে গোয়েন্দাদের

মাত্র দেড় লক্ষ খরচেই তৈরী সব নথি, বাংলাদেশী জঙ্গিদের ভারতে প্রবেশে ঘুম উড়ছে গোয়েন্দাদের

বাংলা শান্তির পীঠস্থান, আর সেই শান্ত বাংলাকে অশান্ত করবার জন্য বাংলাদেশের নাগরিকেরা ভারতের নাগরিক সেজে পাড়ি দিচ্ছে দুবাইয়ে বলেই ধারণা গোয়েন্দা বিভাগের। জানা গেছে, দেড় লক্ষ টাকা প্যাকেজ ব্যবহার করে সচিত্র পরিচয় পত্র, আধার, প্যান ইত্যাদি নথির মাধ্যমে শ্রমিক ভিসা মিলছে – আর এসবের পিছনে রয়েছে এক বড়সড় চক্র। কিন্তু, গোয়েন্দা দপ্তরের চিন্তা বাড়িয়ে এইসব বাংলাদেশিরা ভারতের পরিচপত্র ব্যবহার করে শুধু দুবাই পাড়ি দিচ্ছেন তাই নয়, ওই চক্রের সাহায্যে রীতিমত এদেশেও জমিয়ে বসছেন বিভিন্ন জঙ্গী সংগঠনের সদস্যরা। সূত্রের খবর, সম্প্রতি গোয়েন্দাদের কাছে এমনই তথ্য আসায় কার্যত চোখ কপালে উঠেছে তাঁদের। কিন্তু হঠাৎ ভারতের প্রতি জঙ্গিদের এই আকর্ষণ কেন? কারা রয়েছে এর পেছনে? গোয়েন্দাদের দাবি, এর পেছনের যোগ রয়েছে পাকিস্তানের হকরত-উল-জিহাদ-আল-ইসলামি তথা হুজি জঙ্গি সংগঠনের।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

জানা গেছে, মাত্র দেড় লক্ষ টাকার এই প্যাকেজিং-এর মাধ্যমে যেভাবে জঙ্গি সদস্যরা ভারতে ঢুকছে তাতে দেশের গোয়েন্দারা ভীষনই উদ্বিগ্ন। এরকমভাবে ভারতের ঢুকলে তাদের ধরা পড়ার সম্ভাবনা খুবই কম। কারণ, এই চক্রের মাথারা ভালোমতোই এই কাজের সমস্ত ফাঁকফোকর জানে। আর যেহেতু দেড় লক্ষ টাকা ফেললেই আধার থেকে প্যান, রেশন কার্ড থেকে পাসপোর্ট – ভারতীয় নাগরিকের সমস্ত নথি তৈরি হয়ে যাচ্ছে ফলে ভারতে তাদের ঘাঁটি গাড়তে কোনরূপ অসুবিধায় হবে না বলে মনে করছেন গোয়েন্দাদের একাংশ। গোয়েন্দা কর্তাদের মতে বেশ কয়েক বছর আগে বাংলাদেশি যুবক হুজি জঙ্গি সংগঠনের সাথে যুক্ত হয়ে এদেশে আসলে দিল্লি স্টেশন চত্বর থেকে সে ধরা পড়ে। তার কাছে প্রচুর পরিমাণে আরডিএক্স মিলেছিল। এভাবে ঢুকে জঙ্গিরা যে কোন দিন দেশের ওপর আক্রমণ করতে পারে আর তাই চিন্তার ভাঁজ পড়েছে দেশের গোয়েন্দা শিবিরে। এই নিয়ে রীতিমতো তদন্ত ও নজরদারি শুরু করেছেন তাঁরা। সব মিলিয়ে দেশের নিরাপত্তা আঁটোসাঁটো করতে সীমান্তেও নজরদারি বাড়ানো হচ্ছে বলে খবর দেশের গোয়েন্দা সূত্রে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!