এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > বালুরঘাটে প্রার্থী ঘোষণা না হলেও, ঘাঁটি গেড়ে দুর্গ-রক্ষার যুদ্ধে তৃণমূল সাংসদ অর্পিতা ঘোষ

বালুরঘাটে প্রার্থী ঘোষণা না হলেও, ঘাঁটি গেড়ে দুর্গ-রক্ষার যুদ্ধে তৃণমূল সাংসদ অর্পিতা ঘোষ


বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থী নির্বাচন নিয়ে তীব্র চাপানউতোর চলছে গতবারের জয়ী সাংসদ অর্পিতা ঘোষ এবং জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি বিপ্লব মিত্রের মধ্যে। দুজনেই প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে কাঁটায় কাঁটায় টক্কর দিচ্ছেন। এবং দুজনেই নিজেদেরকে প্রার্থী করার স্বপক্ষে জোরদার সওয়াল তুলছেন।

এর জেরে বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তৃণমূল কংগ্রেস সংগঠন কার্যত দু দলে ভাগ হয়ে গিয়েছে। এই প্রেক্ষিতে ঘাঁটি গেড়ে দূর্গ রক্ষার কাজে নেমে পড়েছেন তৃণমূল সাংসদ অর্পিতা ঘোষ। বালুরঘাট কলেজ মোড়ে ভাড়া নেওয়া ফ্ল্যাটে লোকসভা ভোট না হওয়া পর্যন্ত পাকাপাকিভাবে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। গতকাল শুক্রবার পুজো দিয়ে ফ্ল্যাটে ঢুকেছেন অর্পিতা দেবী।

অর্পিতার বিরোধীমহল,সম্প্রতি শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে এবারের লোকসভা ভোটে স্থানীয় কাউকে প্রার্থী করার দাবী জানিয়ে বিপ্লব মিত্রের স্বপক্ষে সওয়াল তুলেছেন। সেদিকটা নজরে রেখেই অর্পিতা দেবী বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে থাকতেই এই ঘরভাড়া অর্পিতা দেবী নিয়েছেন বলেই চর্চা শুরু হয়েছে দলীয় অন্দরে।

যদিও অর্পিতা দেবীর বক্তব্য, জেলার বিভিন্নপ্রান্তে নির্বাচনী সভা করতে এবং সংগঠনকে শক্তিশালী করার স্বার্থেই এখানে থাকার জন্য ঘর নেওয়া হয়েছে। দিনকয়েক আগেই ঘরের ডেকোরেশনের কাজ শেষ হয়েছে। তারপর প্রয়োজনীয় আসবাবপত্রও নিয়ে আসা হয়েছে।  ফ্ল্যাটে তিনি গৃহপ্রবেশের পুজো করেই পাকাপাকিভাবে ঘরে থাকছেন তিনি। গতকাল গোটা দিনই পুজো নিয়ে তিনি ব্যস্ত ছিলেন বলেই জানালেন অর্পিতা।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

উল্লেখ্য,আসন্ন লোকসভা ভোটে বালুরঘাট আসনের জন্যে এখনো প্রার্থী ঘোষণা না হলেও দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ রয়েছে,লোকসভা ভোট পর্যন্ত সংসদ সদস্যদের নিজেদের এলাকাতেই থাকতে হবে। আর সেই নির্দেশকে মান্যতা দিয়েই নির্বাচন পর্যন্ত এলাকায় থাকতে পাকিপাকিভাবে ঘর গুছিয়ে নিলেন তিনি,এমনটাই বক্তব্য বালুরঘাট লোকসভা ভোটের সম্ভাব্য প্রার্থী অর্পিতা ঘোষের। প্রসঙ্গে জানালেন,’সংগঠনকে শক্তিশালী করতে যা যা করণীয় তা করব। আমি বহিরাগত কেউ নই। বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্র থেকে আমরা প্রচুর ভোটে জয়ী হব।’

দলীয় সূত্রের খবর থেকে জানা গিয়েছে,গত লোকসভা ভোটে এই লোকসভা কেন্দ্র থেকে প্রার্থী হওয়ার পর গঙ্গারামপুরে একটি বাড়ি ভাড়া নিয়েছিলেন অর্পিতা। সেই বাড়িতে থেকেই নির্বাচন পরিচালনা করেছিলেন। তবে ভোটে জয়ী হওয়ার পর সেই বাড়ি তিনি ছেড়ে দেন। কলকাতা থেকে যখন জেলায় আসতেন বেশিরভাগ সময়েই সার্কিট হাউসে থাকতেন। এরপর পঞ্চায়েত নির্বাচনের সময় জেলায় পাকাপাকিভাবে থাকতে ডানলপ মোড়ে একটি ঘর ভাড়া নিয়েছিলেন তিনি তবে সেখানে বেশ কিছু অসুবিধা সামনে আসায় ঘরটি পরে ছেড়ে দেন তিনি।

এরপর দলীয় কোর কমিটির বৈঠকে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন যে লোকসভা ভোট পর্যন্ত নিজ নিজ কেন্দ্রের সাংসদদের এলাকায় থেকেই প্রচার করতে হবে। এছাড়া এলাকায় যেসব সংসদ ভালো কাজ করেছেন তাঁদেরকে প্রার্থী করা হবে বলেও জানান নেত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই ঘোষণার পরই অর্পিতা ঘোষের ফের প্রার্থী হওয়া নিয়ে জল্পনা শুরু হয়। তবে এখনো বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রে কাকে প্রার্থী করা হবে তা নিয়ে কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি প্রশাসনের তরফ থেকে।

তবে দলীয় সূত্রের দাবী,এই কেন্দ্রে প্রার্থী নির্বাচনকে কেন্দ্রকে দলের একাংশের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হয়েছে অর্পিতা দেবীর। তবে এই দাবীকে তেমন পাত্তা দিতে নারাজ গতবারের জয়ী সাংসদ। তাঁর বক্তব্য,মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যাঁকে প্রার্থী করবেন তাকেই মেনে নিতে হবে সবার। এক্ষেত্রে কে কী বলছেন তা গুরুত্বহীন। নেত্রীর নির্দেশ মেনেই তিনি জেলায় ঘর নিয়েছেন বলে স্পষ্টভাবে জানালেন অর্পিতা দেবী।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!