এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বাজপেয়ীর দেখানো পথেই ‘মহানিষ্ক্রমন’ হবে নরেন্দ্র মোদীর? জল্পনা বাড়ালেন হেভিওয়েট নেতা

বাজপেয়ীর দেখানো পথেই ‘মহানিষ্ক্রমন’ হবে নরেন্দ্র মোদীর? জল্পনা বাড়ালেন হেভিওয়েট নেতা

দিল্লির মসনদ থেকে ক্ষমতাচ্যূত হতে চলেছেন বিজেপি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনেই বদলে যাবে বিজেপির দাবার ঘুঁটির চাল। জয়ের স্বপ্ন পরিনত হবে পরাজয়ের গ্লানিতে। ২০০৪ সালের রাজনৈতিক ঘটনার পুনরাবৃত্তি হতে চলেছে ২০১৯ এ। আসন্ন লোকসভা ভোটের ফলাফল নিয়ে এমনটাই আগাম বার্তা দিলেন বর্ষীয়ান এনসিপি নেতা শারদ পাওয়ার। এদিন একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে এভাবে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস সুপ্রিমো শারদ পাওয়ার।

শারদ পাওয়ার মোদী বিরোধীতার অন্যতম প্রধান মুখ। একথা অজানা নয় কারো। এবারের লোকসভা ভোটে প্রার্থী না হলেও কট্টর বিজেপি বিরোধী অবস্থান তিনি কায়েম রেখেছেন। তবে প্রয়োজন পড়লে বিজেপি বিরোধী জোটকে পরামর্শ দিতে তিনি স্বমহিমায় উপস্থিত থাকবেন। সাহায্যে কোনো কার্পণ্য করবেন না,এমনটাই জানিয়ে দিয়েছেন সম্প্রতি। দুঁদে এই রাজনীতিবিদ সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে জানালেন,২০১৯ এর লোকসভা ভোট এবং ২০১৮ এর মহারাষ্ট্রে বিধানসভা নির্বাচনের জোট সমীকরণে থাকবে বিস্তর ফারাক। পাশাপাশি জানালেন,সাম্প্রতিক কালে রাজনৈতিক পরিস্থিতির সঙ্গে হুবহু মিল খুঁজে পেলেন ২০০৪ সালের লোকসভা ভোটের প্রেক্ষিতের। বললেন,তখনও ক্ষমতায় ছিলেন এনডিএ সরকার। অলট বিহারী বাজপেয়ী ছিলেন ক্ষমতার শীর্ষে। এখনও কেন্দ্রের লাগাম ধরে রয়েছেন বিজেপি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেবারও বিজেপিকে হটিয়ে কংগ্রেস ক্ষমতায় এসেছিল,এবারও তাই হবে।

তিনি আরো জানান,লোকসভা নির্বাচনে কোনো এক পার্টিই নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে না, যে দলই ক্ষমতায় আসুক না কেন, আঞ্চলিক দলগুলোকে সঙ্গে নিয়েই ক্ষমতায় আসতে হবে। তাঁর মতে,বিরোধী জোটের পাল্লা ভারী এই মুহূর্তে, কাজেই বিজেপি যুদ্ধে পেরে উঠবে না। ২০০৪ সালেও কোনো একক পার্টি সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি,ফলত বাজপেয়ীকে হারিয়ে ক্ষমতায় এসেছিলেন কংগ্রেস প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। পরপর দুটো নির্বাচন জিতে সেই সরকার একটানা ১০ বছর কেন্দ্রের ক্ষমতায় ছিল। সেই একই পরিস্থিতির পুনারাবৃত্তি দেখা যাচ্ছে ২০১৯ এর লোকসভা ভোটের প্রস্তুতি পর্বে। অটল বিহারী বাজপেয়ীও ক্ষমতায় থাকার সময় উজ্জ্বল ভারত গড়ার স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন দেশবাসীকে। কিন্তু আদতে কাজের কাজ করেনি কিছু্। মানুষকে শুধু উন্নয়নের নামে বোকা বানিয়ে গিয়েছে এনডিএ সরকার। ঠিক একই রকমভাবে গত চার বছর ধরে মানুষকে মিথ্যে ‘আচ্ছে দিন’- এর স্বপ্ন দেখিয়ে গিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। তাই এবার পরিবর্তন আসবে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো  করুন এই লিঙ্কেখবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক

দিল্লির তখত থেকে অপসারণ ঘটবে বিজেপি সরকারের। ক্ষমতায় আসবে জোট সরকার। শারদ পাওয়ারের ভাষায়,’তুলনা করুন বাজপেয়ী ও মোদীর নেতৃত্বের। তাঁদের প্রধানমন্ত্রিত্ব ও নেতৃত্বগুণ বিচার করুন, দেখবেন ভারতী জনতা পার্টির অনেক বড় নেতা অটলবিহারী বাজপেয়ী। আমি সেটাই মনে করি। আমি মনে করি না ওই পার্টিতে আর সেই পরিস্থিত রয়েছে।’ উল্লেখ্য,রাজনৈতিক অভিজ্ঞতাসম্পন্ন এই বর্ষীয়ান নেতার লোকসভা ভোটের প্রাক মুহূর্তে করা বিজেপি বিরোধী ভবিষ্যত বাণীর কথা প্রকাশ্যে আসতেই জল্পনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিকমহলে। হেভিওয়েট নেতার বক্তব্যের চুলচেরা বিশ্লেষণ চলছে বিজেপি শিবিরের অন্দরেও,এমনটাই আঁচ পাওয়া গিয়েছে।

Top
error: Content is protected !!