এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বৈশাখীর মেয়ের জন্মদিনে কে কে ছিলেন তৃণমূলের, জোর চর্চা রাজনৈতিক মহলে

বৈশাখীর মেয়ের জন্মদিনে কে কে ছিলেন তৃণমূলের, জোর চর্চা রাজনৈতিক মহলে

 

বৈশাখী বন্দোপাধ্যায়কে নিয়ে তৃণমূলের একাংশের আপত্তির জন্যই ঘাসফুল ছেড়ে পদ্ম শিবিরে নাম লিখিয়েছিলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। পরবর্তীতে বিজেপিতেও সেইভাবে বৈশাখীদেবী পাত্তা না পাওয়ায় দলের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হয়েছিল শোভন বাবু এবং বৈশাখীদেবীর। যার ফলে দীর্ঘদিন ধরেই তাদের বিজেপিতেও নিষ্ক্রিয় থাকতে দেখা যায়। যা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে অনেক জলঘোলা হয়।

তবে এরপরই সম্প্রতি ভাতৃদ্বিতীয়ার দিন মমতা বন্দোপাধ্যায়ের বাড়িতে গিয়ে ভাইফোঁটা নিতে দেখা যায় শোভন চট্টোপাধ্যায়কে। যেখানে তার সাথে উপস্থিত ছিলেন তার বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ও। যা নিয়ে রাজনৈতিক মহলের একাংশ মনে করেছিল যে, এবার হয়ত ফের তৃণমূলে ফিরতে চলেছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়।

আর শোভন চট্টোপাধ্যায়কে নিয়ে যখন এহেন দোদুল্যমান পরিস্থিতি চলছে, ঠিক তখনই রাজনৈতিক মহল দেখে নিতে চাইছিলো যে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় এবং শোভন চট্টোপাধ্যায় ঠিক কোন দলের! এরকম একটি সুযোগও চলে এসেছিল।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রাম, হোয়াটস্যাপ, ফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

বস্তুত, শুক্রবার নিজের মেয়ে রিলিনার জন্মদিন ধুমধাম করেই পালন করেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। যেখানে উপস্থিত ছিলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়ও। এই অনুষ্ঠানে তৃণমূল এবং বিজেপি দুই দলের হেভিওয়েট নেতাদেরই আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। কিন্তু কে কে আসলেন শেষ পর্যন্ত!

জানা গেছে, ভাতৃদ্বিতীয়ার দিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ী গিয়ে তাকেও আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে কাজ থাকার জন্য তিনি আসতে পারবেন না বলেই জানিয়ে দিয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী। তবে সেদিন তৃণমূল মহাসচিব শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে এই ব্যাপারে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন বৈশাখীদেবী।

কিন্তু এদিন পার্থবাবুকে এই অনুষ্ঠানে দেখা যায়নি। তবে বিজেপির তরফ কেউ কি উপস্থিত ছিলেন! সূত্রের খবর, বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের মেয়ের জন্মদিনে দিলীপ ঘোষ থেকে রাহুল সিনহা, সকলকে আমন্ত্রণ জানানো হলেও তারা কেউই আসেননি। তবে এই অনুষ্ঠানে সস্ত্রীক যোগ দিয়েছিলেন রাজ্য বিজেপির সহ-সভাপতি চন্দ্র বসু।

আর এই ঘটনা দেখে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যতই জল্পনা ছড়াক যে শোভন চট্টোপাধ্যায় তৃনমূলে যোগ দিচ্ছেন, তা যে কিছুটা হলেও ভিত্তিহীন, তা এদিনের ঘটনা থেকেই প্রমাণিত হয়ে গেল। কারন আমন্ত্রণ পাওয়া সত্ত্বেও যেভাবে তৃণমূলের একজন নেতাও বৈশাখীদেবীর মেয়ের জন্মদিনে আসলেন না, তাতেই তৃণমূল যে এখনও শোভন চট্টোপাধ্যায় থেকে বিমুখ রয়েছে, তা প্রমাণিত হল বলেই মত সমালোচক মহলের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!