এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বাগরি আগুন কান্ড কি পরিকল্পিত,সিসিটিভি ফুটেজ ঘিরে বাড়ছে রহস্য

বাগরি আগুন কান্ড কি পরিকল্পিত,সিসিটিভি ফুটেজ ঘিরে বাড়ছে রহস্য

শনিবার মধ্যরাতে বিধ্বংসী অগ্নিকান্ডে তছনছ হয়ে গিয়েছে উত্তর কোলকাতার বাগরি মার্কেট। আগুন লাগার নেপথ্যের কারণ খতিয়ে দেখতে তদন্তে নেমে পুলিশের হাতে এল একটি সিসিটিভি ফুটেজ। ভিডিওতে সাফ দেখা যাচ্ছে,আগুন লাগার সময় একটি স্কুটিতে এবং কয়েকজন দৌড়ে পালিয়ে যাচ্ছে। সেসময় দাউদাউ করে জ্বলছে মার্কেটের বাইরের অংশ। ভেতরে তখনো আগুন অতোটা লাগেনি। স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে হাজির থাকলেও ওই যুবকগুলো ওভাবে পালিয়ে যাচ্ছে কেন তা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে তদন্তকারী পুলিশের কর্মকর্তাদের।

ভিডিও ফুটেজের খবরটি কানে গিয়েছে বিদেশ সফরে থাকা মুখ্যমন্ত্রীর-ও। তিনি এই ইস্যুতে উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিলেন। জানালেন,তদন্তের ব্যাপারে কোনো ঢিলেমি বরদাস্ত করা হবে না। দমকল,পুরসভা ও পুলিশ প্রশাসনকে তদন্তের ব্যাপারে সক্রিয় হতে বললেন। দোষীদের কড়া শাস্তি হবে। কেউ নিস্তার পাবে না। এমনটাই কড়া বার্তা তাঁর। এছাড়া বাগরি মার্কেটের ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে বার্তা দিয়ে বললেন, ব্যবসা করার পাশাপাশি কর্মচারী,ক্রেতাদের নিরাপত্তার ব্যাপারে সচেতন থাকাটা জরুরি। গর্জে উঠে বললেন,”দেশলাই মারলেই দাউদাউ করে আগুন জ্বলবে আর সরকারের ঘাড়ে দায় চাপাবে এটা তো হতে পারে না।”

মুখ্যমন্ত্রী বাগরি মার্কেটের অগ্নিকান্ডের তদন্তের পাশাপাশি কোলকাতার অন্যান্য বড় বহুতলে থাকা বিপজ্জনক বাজারগুলোর পরিকাঠামো খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিলেন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়কে। হুঁসিয়ারী মন্তব্যে জানালেন,বাজার গুলোর তদারকির দায়িত্ব ব্যবসায়ী,মালিকরা নিক নহলে প্রশাসনকে করতে দিক্। ওরাও করবে না আবার রাজ্যসরকারকেও করতে দেবে না অথচ কোনো সমস্যা হলেই প্রশাসনকে দোষারোপ করবে এটা চলবে না। তিনি আরো জানালেন, বাজারগুলোর পরিকাঠামো তদারকি করে নিরাপত্তার ব্যাপারে সচেতন হতে। প্রয়োজনের চারতলার যায়গায় দশতলা বিল্ডিং হোক কিন্তু পরিকাঠামো ঠিক থাকুক এটাই নেত্রীর বক্তব্য।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

উল্লেখ্য,ইতিমধ্যেই এই দুর্ঘটনার জন্য বাগরি এস্টেট প্রাইভেট লিমিটেডের দুই মালিক রাধা বাগরি,বরুণরাজ বাগরি এবং সংস্থার সিইও কৃষ্ণকুমার কোঠারির নামে বড়বাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে সর্বহারা ব্যবসায়ীরা। অগ্নিকান্ডের পর থেকেই গা ঢাকা দিয়েছেন তাঁরা। পুলিশ খোঁজ করছে তাঁদের। এই দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন,প্রাথমিকভাবে হকারের ডালা থেকে আগুন লেগেছে। কিন্তু ব্যবসায়ীরা দাহ্য পদার্থগুলো এমনভাবে রেখেছিল যে পরে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা যায়নি। তাছাড়া দমকলের গাড়ি ঢুকতেও অসুবিধা হয়েছে। তাই তিনি দাহ্য পদার্থগুলো নিয়ে ব্যবসায়ীদের বাড়তি সতর্ক হতে বললেন। আর এদিকে পুলিশের হাতে আসা সিসিটিভি ফুটেজ এই অগ্নিকান্ডের রহস্যের জ্বাল ভেদ করতে পারে কিনা সেদিকেই বাড়তি নজর রয়েছে আপাতত প্রশাসনের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!