এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বাগড়িতে আগুন লাগার ঘটনায় কি রাধা বাগরি ও তার ছেলের ষড়যন্ত্র, ফোন ঘিরে বাড়ছে রহস্য

বাগড়িতে আগুন লাগার ঘটনায় কি রাধা বাগরি ও তার ছেলের ষড়যন্ত্র, ফোন ঘিরে বাড়ছে রহস্য

একটি অগ্নিকান্ড। যাকে ঘিরে যত দিন যাচ্ছে ততই যেন ঘনীভূত হচ্ছে রহস্য। শহরের বাগরি মার্কেটের এই ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের পেছনে ষড়যন্ত্র নাকি অন্তর্ঘাত রয়েছে তা নিয়ে প্রথম থেকে ধন্দ কাটছিল না কিছুতেই। এবারে সেই ধোঁয়াশা কাটাতে তদন্তকারী। সূত্রের খবর, এই অগ্নিকান্ডের তদন্তে নেমে তদন্তকারীরা বাগরির কর্নধার রাধা বাগরি ও তাঁর ছেলের ভূমিকাকে খতিয়ে দেখতে শুরু করেছে। আর এই দুই জনের ভূমিকা যে তাঁদের মোবাইলই হয়ে উঠতে পারে সেই ব্যাপারে নিশ্চিত তদন্তকারীরা।

ইতিমধ্যেই এই রাধা বাগরি ও তাঁর ছেলের নামে একাধিক নম্বর পুলিশের কাছে আসতে শুরু করেছে। কল লিষ্ট বের করে পুলিশ আধিকারিকরা জানতে পেরেছেন যে,আগুন লাগার সময় এই রাধা বাগরীর নাম্বারে মধ্য কোলকাতা থেকে একটি ফোন আসে। আর এই ফোনের সূত্র ধরেই তদন্তকারীরা মনে করছেন যে, আগুন লাগার খবর এই ফোনের মাধ্যমেই রাধা বাগরিকে দেওয়া হয়েছিল। শুধু তাই নয়, আগুন পাওয়ার খবর জানার সাথে সাথেই দুজনের সাথে ফোনে কথা বলতে থাকেন রাধা বাগরী। কে তারা? কাদের সঙ্গে কথা বলছিলেন রাধা বাগরি এখন তাঁদেরই খোঁজ চালাচ্ছেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। একবার নয়, একাধিকবার কথা হয় তাঁদের মধ্যে। কিন্তু সেই কথাবার্তা কী নিয়ে হয়েছিল, তা স্পষ্ট নয়। অন্যদিকে এই বাগরি মার্কেটে অগ্নিকান্ডের পর থেকে হদিশ নেই সেই বাগরি কর্নধারেরও।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

একাংশের ধারনা, শনিবার সকালে আগুন লাগার দিন নিজের বাড়ি ছেড়ে এক পরিচিতর বাড়িতে ওঠেন রাধা বাগরি।  রবিবার থেকে তার আর কোনোরুপ খোঁজই পাওয়া যাচ্ছে না। অফিসারদের কাছে খবর, রবিবার থেকে তিনি আর শহরে নেই।সব মিলিয়ে এখন এই বাগরি মার্কেটের ঘটনায়মূল অভিযুক্ত রাধা বাগরিকে জেরা করে সেদিনের ফোনে কথোপোকথোনের ব্যাপারে স্পষ্ট হতে টান তদন্তকারী আধিকারিকেরা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!