এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বাবুলকে যাদবপুরে হেনস্থা করা দেবাঞ্জনকে তার নিজের এলাকায় বাস থেকে নামিয়ে নিগ্রহের অভিযোগ

বাবুলকে যাদবপুরে হেনস্থা করা দেবাঞ্জনকে তার নিজের এলাকায় বাস থেকে নামিয়ে নিগ্রহের অভিযোগ

ঘটনার পর এত দিন পেরিয়ে গেলেও যাদবপুর ঘটনার স্থায়িত্ব কিন্তু এখনো রয়ে গেছে। প্রসঙ্গত, সম্প্রতি যাদবপুরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় ছাত্রদের দ্বারা নিগৃহীত হন। দীর্ঘক্ষণ আটকে থাকার পরেও তিনি যখন ছাত্র-ছাত্রীদের ঘেরাওয়ের হাত থেকে মুক্তি পান না, সেসময় তাকে মুক্ত করতে ময়দানে নামেন পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। যা নিয়েও চূড়ান্ত বির্তকের সৃষ্টি হয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

রাজ্যপাল কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে উদ্ধার করে তাঁর গাড়িতে করে নিয়ে বেরিয়ে যান। ঘটনার রেশ এখনো যে মেলায়নি তার প্রমাণ মিলল এদিন। যাদবপুর কান্ডের রেশ ধরেই এদিন বর্ধমানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র গায়ে হাত দেওয়ার ফলে খবরের শিরোনামে উঠে আসা দেবাঞ্জন বল্লভ চট্টোপাধ্যায়ের ওপর হামলা হলো।

যাদবপুরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর হামলার ঘটনায় বর্ধমানের ছাত্র দেবাঞ্জন বল্লভ চট্টোপাধ্যায়কে দেখা গিয়েছিল, বাবুল সুপ্রিয়র চুলের মুঠি ধরে টানছে। এবার সেই একই কান্ড হলো তাঁর নিজের সাথেও। বুধবার সন্ধ্যায় বর্ধমানের উল্লাস এলাকায় বাস থেকে নামিয়ে তাঁকে এবং তাঁর বান্ধবীকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ।

অভিযোগে জানা যাচ্ছে, দেবাঞ্জন এর জামা ছিঁড়ে দেওয়া হয়েছে মারধরের ফলে। রাতেই দেবাঞ্জন বর্ধমান থানায় গিয়ে তাঁর অভিযোগ জানায়। ঘটনাটি নিয়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। অভিযোগের তীর বিজেপি নেতৃত্বের দিকে থাকার দরুণ তাঁরা সেই ঘটনা সম্পূর্ণরূপে অস্বীকার করেছে।

সূত্রের খবর, এদিন সন্ধ্যায় দেবাঞ্জন ও তাঁর বান্ধবী বর্ধমান থেকে কলকাতা যাবার উদ্দেশ্যে উল্লাস থেকে একটি সরকারি বাসে চাপেন। বাসটি কিছুদূর যাবার পরেই আসল ঘটনা ঘটে। অভিযোগক্রমে এরপর বাসে কিছু বিজেপির লোক ওঠে। এবং বাস থেকে টেনে নামানো হয় দেবাঞ্জন ও তাঁর বান্ধবীকে।

এরপরে শুরু হয় দেবাঞ্জন এর উপর হামলা। বাধা দিতে গেলে দেবাঞ্জন এর বান্ধবীকেও ছাড় দেওয়া হয়নি। তাঁকেও ব্যাপক মারধর করার অভিযোগ উঠেছে । ঘটনার পরেই সোজা দেবাঞ্জন বর্ধমান থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। সেই রাতেই পূর্ব বর্ধমান জেলার ডিএসপি সদর সৌভিক পাত্র দেবাঞ্জন এর সাথে কথা বলেন বলে জানা গেছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

এই ঘটনার কথা শোনার পরেই বর্ধমান জেলার বিজেপির সভাপতি সন্দীপ নন্দী জানান, তাঁরা কোন মারধরের ঘটনায় যুক্ত নন। এটি সম্পূর্ণ বিজেপির ঘাড়ে দোষ চাপানোর একটি ইচ্ছাকৃত প্রক্রিয়া। যে কেউ করছে আর দোষ চাপাচ্ছে বিজেপির উপরে।এই ঘটনায় বিজেপি দলের পক্ষ থেকে অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করা হয়েছে। তবে এখনো পর্যন্ত বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব এই বিষয়ে কিছু বলেননি।

অন্যদিকে, সরকারের তরফেও কোন বিবৃতি জারি করা হয়নি। ঘটনায় রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের দাবি, প্রতিহিংসামূলক আচরণের জন্য দেবাঞ্জন এর উপর এই হামলার ঘটনা ঘটলেও ঘটতে পারে। তবে প্রমাণ ছাড়া এখনই কাউকে অভিযুক্ত বা সন্দেহ করা ঠিক নয়। ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে রাজনৈতিক মঞ্চে এবার কোন নতুন নাটক উপস্হিত হতে চলেছে তার দিকে নজর থাকবে সবার।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!