এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > পাল্টা চালে এবার পুলিশের বিরুদ্ধেই এফআইআর বাবুল সুপ্রিয়র

পাল্টা চালে এবার পুলিশের বিরুদ্ধেই এফআইআর বাবুল সুপ্রিয়র

রানিগঞ্জে ধর্মীয় উৎসব অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে হিংসা ও হানাহানির ঘটনায় ,আসানসোলের সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র একের পর এক রাজ্য সরকার বিরোধী মন্তব্য সহ কার্যকলাপে কার্যতই তিনি সংবাদ শিরোনামে। এদিন এই বিজেপি সাংসদ নিজের নির্বাচন কেন্দ্র আসানসোল যাওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ তাঁর গাড়ির পথ আটকায়। এই বিষয় নিয়ে পুলিশের সাথে সাংসদের বাক যুদ্ধ বেঁধে যায়। ঘটনা এরপর হাতাহাতির পর্যায়ে পৌঁছায়। কর্তব্যরত পুলিশ কর্মীদের সাথে হাতাহাতি তে জড়িয়ে আসানসোলে ১৪৪ ধারা লঙ্ঘনের অভিযোগে এলাকার সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বিরুদ্ধে পুলিশ জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা দায়ের করে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

অন্যদিকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে শারীরিকভাবে হেনস্তা করার অভিযোগে পুলিশের বিরুদ্ধে পাল্টা এফআইআর দায়ের করেছেন তিনি। উল্লেখ্য আসানসোলে ১৪৪ ধারা বলবৎ থাকার কারণে মাঝ পথ থেকেই এদিন সাংসদকে ফিরে আসতে হয়। তবে রানিগঞ্জ কান্ড নিয়ে যে কেন্দ্র-রাজ্যের চাপানউতোর বাড়ছে এই ঘটনাতেই তা স্পষ্ট। এই ঘটনা ক্রমশ রাজনৈতিক মেরুকরণের দিকে এগোচ্ছে বলেই ধারণা রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের। একদিকে যেমন বিজেপি এই ঘটনাকে রাজ্যে সাম্প্রতিককালে ঘটে যাওয়া মালদা, ধুলাগড় বা বাদুড়িয়া কাণ্ডের সাথে জুড়ে দিতে চাইছে, অন্যদিকে ঘাসফুল শিবির সমগ্র ঘটনার জন্য পদ্ম শিবিরকেই দায়ী করছে। প্রসঙ্গত, রানিগঞ্জ কান্ড নিয়ে আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় ইতিমধ্যেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বিশদে কথা বলেছেন। কেন্দ্রও নবান্নের উপর চাপ বাড়িয়ে রানিগঞ্জে আধাসেনা নামানোর প্রস্তাব পাঠিয়েছে। যদিও তা পত্রপাঠ নাকচ করে দিয়ে কলকাতা পুলিশের ৩ আইপিএসের নেতৃত্ত্বে রানিগঞ্জের অশান্ত পরিবেশকে নিয়ন্ত্রণে আনতে চাইছে রাজ্য প্রশাসন।

Top
error: Content is protected !!