এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুরুলিয়া-ঝাড়গ্রাম-বাঁকুড়া > এক্সক্লুসিভ ভিডিও: পুরুলিয়ার ডিএমের সাথে তুমুল তর্কাতর্কি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র

এক্সক্লুসিভ ভিডিও: পুরুলিয়ার ডিএমের সাথে তুমুল তর্কাতর্কি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র

গতকাল দুদিনের বঙ্গ-সফরের শেষ দিনে পুরুলিয়ায় বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের বিশাল জনসভা ছিল। এমনিতেই পঞ্চায়েত নির্বাচন থেকেই পুরুলিয়া জুড়ে গেরুয়া হাওয়া বইছে, তার উপরে মাত্র তিনদিনের মধ্যে দুই বিজেপি কর্মীর রহস্যজনকভাবে ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার হওয়া নিয়ে রীতিমত উত্তপ্ত ছিল পুরুলিয়া। আর তাই স্বাভাবিকভাবেই নিজের ঝটিকা সফরের মধ্যেই পুরুলিয়ার জন্য বিশেষ সময় দিয়েছিলেন খোদ অমিত শাহ। আর অমিত শাহর জনসভা নিয়ে রাজ্য বিজেপি নেতাদের উৎসাহ ছিল চোখে পড়ার মত। কিন্তু গতকাল তাঁর সভার আগেই কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র সঙ্গে তুমুল বচসা হয় পুরুলিয়ার জেলাশাসকের।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

বাবুল সুপ্রিয়র দাবি ছিল, অমিত শাহের জনসভা ঘিরে মানুষের উন্মাদনা তুঙ্গে, মানুষের দল নেমেছিল সেই সভায়। কিন্তু সেই জনস্রোতকে সুষ্ঠুভাবে সামাল দেওয়ার বদলে পুরুলিয়ার জেলাশাসক নিজে একটি কালো গাড়িতে চেপে রাস্তা আটকে দাঁড়িয়ে ছিলেন দীর্ঘক্ষণ। ফলে রাস্তায় যানজট শুরু হয়ে যায়, এমনকি তারফলে শুরু হয় তুমুল বিশৃঙ্খলা। একজন জেলাশাসক হিসাবে যেখানে জেলার আইনশৃঙ্খলা সুষ্ঠুভাবে নিয়ন্ত্রণে রাখা তাঁর দায়িত্ত্ব, সেখানে তিনি নিজেই গাড়িতে বসে থেকে রাস্তা আটকে তা আরো বিশৃঙ্খল করতে চাইছেন। আর তাই তিনি তাঁকে সেই গাড়িটি সরিয়ে নিতে নির্দেশ দেন। জবাবে জেলাশাসক স্পষ্ট জন্যে দেন, তিনি কোনো ভাবেই যানজট সৃষ্টি করছেন না এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র নির্দেশ মানতে তিনি বাধ্য নন। তিনি রাজ্য সরকারের নির্দেশ মেনে কাজ করতে বাধ্য, সুতরাং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী যতই অভিযোগ করুন, তিনি নিজের মত নিজের কাজ করবেন। প্রিয় বন্ধু বাংলার হাতে এল সেই উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ের এক্সক্লুসিভ ভিডিও, দেখে নিন একনজরে –

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!