এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > থিম সং গেয়ে বিপাকে বাবুল সুপ্রিয়,তলব কমিশনের

থিম সং গেয়ে বিপাকে বাবুল সুপ্রিয়,তলব কমিশনের

নির্বাচনী প্রচারে থিম সং গেয়ে অস্বস্তিতে জড়ালেন বিজেপির গায়ক-মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। রাজ্যের শাসকদলের তরফ থেকে বিজেপির থিম সং নিয়ে অভিযোগ জমা পড়ল এবার নির্বাচন কমিশনের দপ্তরে। এই সংক্রান্ত অভিযোগ আগেও পুলিশের কাছে জমা পড়েছিল। এবার একধাপ এগিয়ে অভিযোগ নিয়ে নির্বাচন কমিশনের দোরগোড়ায় হাজির হল হল তৃণমূল।

রাজ্যবিজেপির থিম সংয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অসম্মান করা হয়েছে,এমনটাই অভিযোগ তৃণমূলের। এই অভিযোগটি রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন আধিকারিকের দপ্তরের মিডিয়া ওয়াচ সেলের নজরে এসেছে। অভিযোগ পাওয়ার পরই নির্বাচন কমিশন শোকজ করেছে আসানসোলের সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে।

দলের প্রচারে গান বেঁধেছেন বিজেপির গায়ক-মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। সম্প্রতি মুম্বইয়ে রেকর্ডিং হয়ে গেল গানটির। গানটির গীতিকার অমিত চক্রবর্তী। গানটির সুর দিয়েছেন এবং গেয়েছেন বাবুল নিজেই। গতকালই প্রকাশ্যে আসে গানটি।
গানে বলা হয়েছে,রাজ্যে ‘সিন্ডিকেট-রাজ’, ‘চপশিল্প’ ছাড়া কোনও শিল্প আসেনি।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষা করতে গিয়ে পুলিশ টেবিলের তলায় মাথা লুকোয়, এই ছবিও গানে বলা হয়েছে। ‘ফুটবে এ বার পদ্মফুল/আর নয় তৃণমূল’। ‘চাষির ছেলে শুধুই কি চাষ করব?’ এমন প্রশ্নও ছোঁড়া হয়েছে। অর্থাৎ বিজেপির প্রচার করতে গিয়ে ঘুরপথে রাজ্যসরকারেরই অপপ্রচার হয়েছে গানটিতে,এমনটাই স্পষ্ট গানের ভাষায়। আর সেখানেই ঘোর আপত্তি শাসকদলের।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এই বিষয়গুলো নিয়েই রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন আধিকারিকের দপ্তরে অভিযোগ জমা করে তৃণমূলের নেতৃত্বরা। সেই অভিযোগ পাওয়ার পরই বিজেপি নেতা বাবুল সুপ্রিয়ের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে সক্রিয় হয়ে ওঠে দপ্তরের কর্তারা।

প্রোটোকল অনুযায়ী,এধরণের থিম সং তৈরি করতে গেল নির্বাচন কমিশনের অনুমতি নিতে হয়। যে নিয়ম উলঙ্ঘন করেছেন বাবুল। তাই তাঁকে শোকজ করা হয়েছে। বিজেপির ওই থিম সং যাতে কমিশনের অনুমতি ছাড়া কোনো মিডিয়ায় ভাইরাল না হয় সে ব্যাপারেও পদক্ষেপ নেওয়া হতে পারে বলে জানা গিয়েছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!