এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > এটিএম জালিয়াতি কাণ্ডে গ্রেপ্তার হতে পারেন স্বয়ং ব্যাঙ্ক ম্যানেজার – বাড়ছে জল্পনা

এটিএম জালিয়াতি কাণ্ডে গ্রেপ্তার হতে পারেন স্বয়ং ব্যাঙ্ক ম্যানেজার – বাড়ছে জল্পনা

বিগত কয়েকদিনে ব্যাঙ্কগুলি থেকে মহানগরীতে বহু টাকা জালিয়াতি হয়েছে। স্কিমার বসিয়ে একাধিক এটিএম থেকে টাকা তুলে নিয়েছে জালিয়াতরা। এই ঘটনায় স্বভাবতই গোটা রাজ্য জুড়েই পরিস্থিতি বেশ সঙ্কটজনক। সমস্ত ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ গ্রাহকদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছে। কানাড়া ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ প্রতারিত গ্রাহকদের টাকা ফিরিয়েও দিয়েছে। কিন্তু সমস্ত ঘটনায় ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ কোনো দায় নেই তা একদমই অস্বীকার করা যায়না ! তাই এখন ব্যাঙ্ক তো বটেই এটিএমগুলিতেও যদি নিরাপত্তাজনিত ত্রুটিতে চুরি, ছিনতাই কিংবা জালিয়াতির ঘটনা ঘটে, তাহলে রেহাই পাবেন না ব্যাঙ্ক ম্যানেজারও।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

এমনকি গ্রেফতার করাও হতে পারে ব্যাঙ্ক ম্যানেজারকে। এই ঘটনায় এদিন হাওড়া জেলা পুলিশ (গ্রামীণ) এর পক্ষ থেকে,হাওড়ার উলুবেড়িয়া মহকুমার সমস্ত ব্যাঙ্কের ম্যানেজারদের সতর্ক করা হয়েছে। উলুবেড়িয়ার এসডিপিও রানা মুখোপাধ্যায় স্বয়ং এদিন বাগনানে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলির এটিএমগুলি ঘুরে দেখলেন। ব্যাঙ্কের নির্দিষ্ট কর্মসীমার বাইরে গ্রাহকের সুযোগ সুবিধা মতো টাকা তোলার জন্যেই মূলত এই এটিএমগুলি তৈরী করা হয়েছিলো।

কিন্তু সেই এটিএমগুলিতে স্কিমার বসিয়ে দিচ্ছে জালিয়াতরা। যার ফলে টাকা তোলার সময়ে গ্রাহকদের যাবতীয় তথ্য চলে যাচ্ছে স্কিমারে। সেই তথ্যকে হাতিয়ার করে আততায়ীরা গ্রাহকদের গচ্ছিত টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। সাম্প্রতিক সময়ে কলকাতা সহ পার্শ্ববর্তী অঞ্চলগুলিতে রাষ্ট্রায়ত্ত ও বেসরকারি ব্যাঙ্কের এটিএম গুলিতে এই জাতীয় ঘটনার সাক্ষী থেকেছে রাজ্যের মানুষ। এই ঘটনায় তদন্ত শুরু করে কলকাতা পুলিশের বিশেষ তদন্তকারী দল বা সিট দু’জন রোমানিয়ানকে গ্রেফতার করেছে। হাওড়া জেলায় এখনও অবধি এইরকম ব্যাঙ্ক সংক্রান্ত অপ্রত্যাশিত ঘটনার খবর না থাকলেও হাওড়া জেলা পুলিশ (গ্রামীণ) আগাম ব্যাঙ্ক ম্যানেজারদের সতর্ক করে দিলেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!