এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > অসমে বাদ গেছে ১২ লক্ষ মতুয়ার নাম,তৃণমূলকে পাশে নিয়ে রেল ধর্মঘট শিয়ালদা শাখায়

অসমে বাদ গেছে ১২ লক্ষ মতুয়ার নাম,তৃণমূলকে পাশে নিয়ে রেল ধর্মঘট শিয়ালদা শাখায়

এবার প্রতিবাদের ঝড় আছড়ে পড়ল উওর ২৪ পরগনাতেও। এদিন সকাল সকালই জেলার বিভিন্ন রেলস্টেশনে অবরোধ কর্মসূচী করতে দেখা যায় সর্ব ভারতীয় মতুয়া মহাসংঘকে। প্রথম দফায় অবরোধের বান ডাকে মধ্যমগ্রাম,নিউ ব্যারাকপুর,ঠাকুরনগর,সন্ডালিয়া রেলস্টেশনে। পরে তা ফুলে ফেঁপে ওঠে নৈহাটি বারাসাত,কাঁকিনাড়া সহ শিয়ালদা মেইন শাখার বিভিন্ন স্টেশানে। এর জেরে বিভিন্ন জায়গায় ট্রেন চলাচল থমকে যায়।   কলেজ পড়ুয়া থেকে নিত্যযাত্রী সকলেই এই ভোগান্তির শিকার হন। কিন্তু কেন এই অবরোধ কর্মসূচি? আসুন জেনে নেওয়া যাক্

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

৩০ জুলাই অসমের নাগরিক পঞ্জিকরণের চূড়ান্ত খসড়া প্রকাশিত হওয়ায় চোখ কপালে ওঠে আমজনতার। ৪০ লক্ষ অসমে থাকা বাঙালিদের নাম বাদ গেছে লিস্ট থেকে। আর এই সংখ্যাগরিষ্ঠ বাঙালিদের মধ্যে ১২ লক্ষেরও বেশি মানুষ মতুয়া সম্প্রদায়ভুক্ত। এমনটাই দাবী করছেন উওর ২৪ পরগনা জেলা তৃণমূল নেতা তথা খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তাই এই অসম সরকারের এই অবিচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে অবরোধ কর্মসূচির পথ বেছে নেয় এদিন সর্বভারতীয় মতুয়া মহাসংঘ। এঁদের সমর্থন করছে তৃণমূল কংগ্রেস, এমনটাই আশ্বাস দিলেন জ্যোতিপ্রিয় বাবু।

ওদিকে,অসমে ৪০ লক্ষ বাঙালিকে ডি-ভোটারের তালিকাভুক্ত করার প্রসঙ্গে বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য বিজেপি সভাপতি করে ফেললেন এক বেফাঁস মন্তব্য। জানালেন,বিজেপি যদি কোনোদিন বাংলার ক্ষমতায় আসে তবে বাংলাদেশিদের ঘাড়ধাক্কা দিয়ে আগে এ রাজ্য থেকে বার করে দেবে। আর এ কাজে যারা বাধা সৃষ্টি করতে চাইবে,তাদেরকেও এ রাজ্যে ঠাই দেওয়া হবে না। এই মন্তব্য করেই ফের অসন্তোষকে উস্কানি দিলেন দিলীপবাবু। রাজ্য বিজেপির সভাপতির বক্তব্যের তীব্র নিন্দা করেছেন মতুয়া মহাসংঘের বড়মা। রীতিমতো ক্ষুব্ধ তিনি। এই মন্তব্যের  প্রতিবাদ করতেও বুধবার সকাল থেকেই উওর ২৪ পরগনার বিভিন্ন স্টেশানে অবরোধ কর্মসূচি পালন করছে সর্বভারতীয় মতুয়া মহাসংঘ,এমনটাই জানা যাচ্ছে জেলা সূত্রের খবর থেকে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!