এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > গন্ডারদের সঙ্গে লড়তে গেলে গন্ডার হতে হয় না , শেয়ালের বুদ্ধি দিয়েও লড়া যায় দাবি বাবুল সুপ্রিয়র

গন্ডারদের সঙ্গে লড়তে গেলে গন্ডার হতে হয় না , শেয়ালের বুদ্ধি দিয়েও লড়া যায় দাবি বাবুল সুপ্রিয়র

শাসকদল তৃনমূল কংগ্রেসের ছাত্রসংগঠন ও বিরোধী দল বিজেপির ছাত্রসংঠন এবিভিপির রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তাপ ছড়াচ্ছে আসানসোলে।আসানসোলের টিএমসিপি-এবিভিপি সংঘর্ষ ঘিরে করা প্রতিক্রিয়া দিলেন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। এবিভিপি, পশ্চিম বর্ধমান, জেলা সংযোজক সায়ন চক্রবর্তীর ট্যুইট বার্তার প্রত্যুত্তরে নিজের অফিসিয়াল ট্যুইটার একাউন্ট থেকে বাবুল সুপ্রিয় একটি ভিডিও পোস্ট করেন। সেখানে তিনি বলেন, অত্যন্ত দুঃখের একটি খবর পেলাম যে সারা পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে যেভাবে তৃণমূলের ছাত্র গুন্ডারা, দিদির ছত্রছায়ায় থাকা এইসমস্ত ছাত্র নেতারা বিভিন্ন কলেজে তোলাবাজি করে, ছাত্রছাত্রীদের থেকে জোর করে পয়সা নিয়ে তাদের হয়রানি করে যা শুরু করেছিল তা এখনো চলছে।

আসানসোলে এরকম একটি ঘটনার প্রতিবাদ করে আমাদের এবিভিপির ছাত্ররা, লজ্জায় আমার মাথা হেঁট হয়েছে, এদের তো আমি ছাত্রনেতা বলব না, এরা ছাত্র দুষ্কৃতী। এরা মনে করছে যে তৃণমূলের ছত্রছায়ায় থেকে এইভাবেই অত্যাচার চালিয়ে যেতে পারবে। আমাদের ভাইদেরকে আমি সরি বলব কেননা সংসদ চলছে, তাই যাবার আমার অনুমতি নেই। কিন্তু আমি তোমাদের পাশে রয়েছি এবং তোমাদের সাহসিকতাকে আমি কুর্নিশ জানাচ্ছি। পুলিশি নিষ্ক্রিয়তা নিশ্চয় ছিল, দুদিন বাদে হয়ত তোমাদের বিরুদ্ধেই অনেকরকম ধারা দিয়ে ওয়ারেন্ট বা এফআইআর করা হবে। তবে ঘাবরিও না – এই লড়াই চলছে-চলবে। যারা তৃণমূল কংগ্রেস করে ভাবছে যে মগের মুলুক বানাবে তাদের বলি যে তোমাদের রুখিবে যে তোমাদের মধ্যেই বাঢ়িছে সে। সাহস রাখো, লোরে যাও – আহতদের বলব গেট ওয়েল সুন। ১২ তারিখ পর্যন্ত সংসদ চলবে তাই ১৪ বা ১৫ তারিখ আমি তোমাদের সঙ্গে দেখা করব। তবে আশা করব তার আগেই তোমরা সবাই সুস্থ হয়ে ফিরে এস। এই সাহসিকতাকে বজায় রেখে বুদ্ধি করে এই অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমাদের লড়ে যেতে হবে। গন্ডারদের সঙ্গে লড়তে গেলে গন্ডার হওয়ার দরকার নেই – শেয়ালের বুদ্ধি দিয়েও লড়া যায়।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার আসানসোল কলেজে বিজেপির ছাত্রসংগঠন এবিভিপি দলের ঠিক করে দেওয়া “সেলফি উইথ ক্যাম্পাস” নামে একটি কর্মসূচীর প্রচারে গেলে তৃনমূল ছাত্র পরিষদ তাঁদের বাধা দেয় বলে আভিযোগ। আর এনিয়েই তুমুল সংঘর্ষ বাধে টিএমসিপি ও এবিভিপির মধ্যে। আহত অবস্থায় কয়েকজনকে হাসপাতালে ভর্তিও করা হয় বলে জানা গেছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!