এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > অরূপ বিশ্বাসের কড়া হুঁশিয়ারি পরে বিবাদ ভুলে এক মঞ্চে শাসক দলের নেতারা কদিন টিকবে “সৌহার্দ্য” সংশয়ে নীচুতলা

অরূপ বিশ্বাসের কড়া হুঁশিয়ারি পরে বিবাদ ভুলে এক মঞ্চে শাসক দলের নেতারা কদিন টিকবে “সৌহার্দ্য” সংশয়ে নীচুতলা

লোকসভা নির্বাচনের আগে এইবার অবশেষে জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক তথা রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের কড়া বার্তার পরে ঐক্যবদ্ধ হতে শুরু করেছেন আসানসোলের শাসক দলের নেতারা। বেশ কিছুদিন ধরেই আসানসোলে তৃণমূলের তিনটি গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে বিভিন্ন তৎপরতা শুরু হয়েছিল। কিন্তু জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক হিসেবে অরূপ বিশ্বাসের কড়া বার্তার পরেই সেই 3 গোষ্ঠীর নেতাদের এক মঞ্চে দেখা গেল।

জানা গেছে, কিছুদিন আগেই দুর্গাপুরে একটি জনসভা করার পর অরূপ বিশ্বাস দলের সমস্ত গোষ্ঠীর নেতাদের নিয়ে একটি বৈঠকে বসেন। আর সেইখানেই সকলকে সতর্ক করে দিয়ে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে সকলকে একসাথে লড়াইয়ে নামার নির্দেশ দেন তিনি। আর এরপরেই বদলাতে শুরু করে সেখানকার চিত্র।

হাতের মুঠোয় আরও সহজে প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে যোগ দিন –

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

আর তারই ফসল হিসেবে শুক্রবার আসানসোলের 3 গোষ্ঠীর শাসকদলের তিন নেতাকে এক মঞ্চে দেখা গেল বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহলের একাংশ। অনেকে বলছেন, দেরিতে হলেও শুভবুদ্ধির উদয় হয়েছে শাসকদলের। কেননা কদিন আগেই দুর্গাপুরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জনসভায় ব্যাপক জনসমাগম হয়। আর যা দেখে কিছুটা অস্বস্তিতে পড়ে তৃণমূল কংগ্রেস।

লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির দিকে যাতে ভোটব্যাঙ্ক চলে না যায় এবং নিজের দলের নেতারা যাতে ঐক্যবদ্ধ থাকে সেজন্য এবার সমস্ত রকম দ্বন্দ্ব মিটিয়ে নিয়ে যে একসাথেই চলতে চায় এলাকার তৃণমূল নেতারা এদিনের মঞ্চে আসানসোলের 3 গোষ্ঠির তিন নেতাদের উপস্থিতিতেই পরিষ্কার হয়ে গেল বলে মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহলের একাংশ।

এদিন এই প্রসঙ্গে পশ্চিম বর্ধমান জেলা তৃণমূল সভাপতি ভি শিবদাসন দাসু বলেন, “জেলা জুড়ে আমাদের বিভিন্ন কর্মসূচি চলছে। সবাই একজোট হয়ে কাজ করছে তাই বিরোধীরা যতই কুৎসা করুক না কেন, ওরা কোনোই লাভ করতে পারবে না।” সব মিলিয়ে এবার লোকসভা নির্বাচন আসতে না আসতেই জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক অরূপ বিশ্বাসের কড়া মন্তব্যের পরেই ঐক্যবদ্ধ হতে শুরু করেছেন আসানসোলের শাসক দলের নেতারা।

Top
error: Content is protected !!