এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বর্ধমান > একদা লাল-দুর্গে বৃষ্টি উপেক্ষা করে অরূপ বিশ্বাসের নেতৃত্ত্বে ২১ শে জুলাইয়ের প্রস্তুতিতে জনজোয়ার

একদা লাল-দুর্গে বৃষ্টি উপেক্ষা করে অরূপ বিশ্বাসের নেতৃত্ত্বে ২১ শে জুলাইয়ের প্রস্তুতিতে জনজোয়ার

একদিকে যখন রাজ্যের মেদিনীপুরে সভা থেকে শাসকদল তৃনমূল কংগ্রেসকে সিন্ডিকেট ইস্যুতে তুলোধোনা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, ঠিক তখনই তৃনমূলের 21 শে জুলাইয়ের প্রস্তুতি সভা উপলক্ষে বর্ধমান শহরে মন্ত্রী অরুপ বিশ্বাসের রোড শো যেন জনজোয়াড়ে পরিনত হল।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

শহরের 35 টি ওয়ার্ডের কর্মীরা এদিন প্রথমে টাউন হলে এসে জড়ো হন। এরপর টাউন হল থেকে শুরু হওয়া এই রোড শো উত্তর ফটকে শেষ হলেও বিসি রোডে প্রবল বৃষ্টিতে ভিজলেও কোনো কর্মীসমর্থককেই মিছিল ছেড়ে বেরোতে দেখা যায়নি। এদিনের এই সভায় উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ, জেলা পরিষদের সভধিপতি দেবু টুডু, বর্ধমান পূর্ব লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ সুনীল মন্ডল, বিধায়ক রবীরঞ্জন চট্টোপাধ্যায়, রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়, সুভাষ মন্ডল, নার্গিস বেগম, নিশীথ মালিক অলোক মাঝি, বর্ধমান পুরসভার চেয়ারম্যান ইন কাউন্সিল খোকন দাস সহ অন্যান্যরা।

এদিন মিছিল শেষে একটি সভারও আয়োজন করা হয়। এদন সেই সভা থেকেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বঙ্গ সফরকে কটাক্ষ করে অরুপ বিশ্বাস বলেন, “মেদিনীপুরে প্রধানমন্ত্রীর সভায় 10 হাজারের জমায়েতের জন্য ওড়িশা, বিহার, ঝাড়খন্ড থেকে লোক নিয়ে এসেছে বিজেপি।” পাশাপাশি কৃষকদের জন্য সভা করলেও রাজ্যের উন্নয়নের তালিকা তুলে ধরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই প্রকৃত ‘কৃষকদরদী’ হিসাবে অভিহিত করলেন এই মন্ত্রী।

এদিন অরুপ বিশ্বাস আরও বলেন, “এতদিন সিপিএমের বিরুদ্ধে লড়াই হয়েছিল, এবার সাম্প্রদায়িক বিজেপিকে সরাতে আগামী দিনে প্রধান মুখ হবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।” বর্ধমান থেকে 21 শে জুলাইয়ে ধর্মতলার সমাবেশে দুলক্ষ কর্মী সমর্থক জড়ো হবেন বলে দাবি অরুপ বিশ্বাসের। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, এই 2শে জুলাইয়ের প্রস্তুতি সভা থেকেই যেভাবে কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগা শুরু করেছেন তৃনমূলের হেভিওয়েট নেতারি, তাতে শেষপর্যন্ত সেই বিজেপির বিরুদ্ধে দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে ধর্মতলার শহীদ মঞ্চ থেকে কী বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!