এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > ভাটপাড়াতে বাজি হেরেও ‘বাজিগর’ তত্ত্বে ‘চমক’ অর্জুন সিং শিবিরের

ভাটপাড়াতে বাজি হেরেও ‘বাজিগর’ তত্ত্বে ‘চমক’ অর্জুন সিং শিবিরের

সকাল থেকেই ভাটপাড়া তো বটেই গোটা ব্যারাকপুর লোকসভা জুড়ে ছিল টানটান উত্তেজনা। কেননা, তৃণমূল কংগ্রেসের ‘বিদ্রোহী’ বিধায়ক তথা অধুনা বিজেপি নেতা অর্জুন সিংয়ের বিরুদ্ধে তাঁরই ‘খাসতালুক’ বলে পরিচিত ভাটপাড়া পুরাসভাতে অনাস্থা এনেছিল শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। রাজনৈতিক অশান্তির আশঙ্কায় এদিন সকাল থেকেই ভাটপাড়া পৌরসভা চত্বর ছিল পুলিশে ছয়লাপ, এমনকি নামানো হয়েছিল র‌্যাফ বাহিনীও বলে স্থানীয় সূত্রের খবর। পাশাপাশি, ভাটপাড়া মোড় থেকে আর্য্য সমাজ মোড় পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করা হয়।

ব্যারাকপুর লোকসভা রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস নিজেদের দখলে রাখতে পারবে নাকি তা ‘বিদ্রোহী’ অর্জুন সিংয়ের দখলে যাবে – তার একটা আঁচ পাওয়া যেতে পারে আজই এই সম্ভবানাকে সামনে রেখে এদিন আস্থাভোটের শুরু থেকেই ব্যাপক চেঁচামেচি শুরু হয় পৌরসভায়। অর্জুন গোষ্ঠীর তীব্র বিরোধিতায় বাতিল হয়ে যায় ‘ওপেন ব্যালট’ ভোট প্রক্রিয়া – বদলে ‘গোপন ব্যালটে’ ভোট করানো হয়। আজ কার্যত অর্জুন সিংয়ের অ্যাসিড টেস্ট ছিল – তিনি দাবি করেছিলেন অনন্ত ২২ জন কাউন্সিলরের সমর্থন তাঁর সঙ্গে আছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

যেখানে, মাত্র ১৮ জন কাউন্সিলরের সমর্থন পেলেই অনাস্থা বাঁচাতে পারতেন অর্জুন সিং, সেখানে ১১-২২ ফলাফলে হেরে যান তিনি। ভাটপাড়া পুরাসভাতে এমনিতে ৩৫ জন কাউন্সিলর, কিন্তু একজন কাউন্সিলরের মৃত্যুতে আপাতত কাউন্সিলর সংখ্যা ৩৪, তার মধ্যে ৩৩ জনই তৃণমূলের। কিছুদিন আগেই তৃণমূল কংগ্রেস ১৯ জন কাউন্সিলরকে এক মঞ্চে হাজির করিয়ে নিজেদের শক্তি প্রদর্শন করেছিল, কিন্তু বাস্তব ক্ষেত্রে দেখা গেল আরও ৩ জন কাউন্সিলর এখনও শাসকদলের সঙ্গেই রয়েছে। ফলে, ভাটপাড়া পৌরসভার বোর্ড ভেঙে গেল, পুরপ্রধানের পদ থেকে সরতে হল অর্জুন সিংকে। ভাটপাড়ায় নতুন পুরপ্রধানের জন্য আবেদন করা হবে।

কিন্তু, চমকের আরও বাকি আছে! অর্জুন সিং শিবিরের দাবি এই হার আদতে ‘কৌশলী হার’। এই মুহূর্তে অর্জুন সিংয়ের পাখির চোখ ব্যারাকপুর লোকসভা নির্বাচনে জয় – আর এই জয়ে নাকি শাসকদলের অন্দরে থেকেও অনেক নেতা কর্মীই তাঁকে সাহায্য করবেন। এই অবস্থায়, ভাটপাড়া পুরসভা বাঁচাতে গিয়ে, যে সব কাউন্সিলররা অর্জুনবাবুর পাশে আছেন, তাঁরা যদি সবাই আজ ভোট দিয়ে অনাস্থা বাঁচাতেন, তাহলে ‘অন্যরকম’ রাজনৈতিক অসুবিধায় পড়তে হত। ফলে, আপাতত ভাটপাড়া পুরসভার ‘ছোট বাজিতে’ হেরে ব্যারাকপুর লোকসভার ‘বড় বাজিতে’ মাত দেওয়ার জন্য এই ‘কৌশলী পদক্ষেপ’। অর্জুন সিং ঘনিষ্ঠ এক নেতার কথায়, আজ চাপ দিয়েই কাউন্সিলরদের ভোট দেওয়ানো হয়েছে, বাস্তবে ৩৩ জন কাউন্সিলরের মধ্যে ৮ জন বাদ দিয়ে কেউই তৃণমূলের পক্ষে নেই। আর তাই বাজি হেরেও যে জেতে তাকে কিন্তু ‘বাজিগরই’ বলা হয়, সুতরাং ২৩ শে মে পর্যন্ত অপেক্ষা করুন, খেলা এখনও অনেক বাকি!

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!