এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > অর্জুন সিংয়ের খাসতালুক দাঁড়িয়েই তাঁকে “গদ্দার, মীরজাফর” বলে আক্রমণ, ব্যারাকপুর নিয়ে আশাবাদী ফিরহাদ

অর্জুন সিংয়ের খাসতালুক দাঁড়িয়েই তাঁকে “গদ্দার, মীরজাফর” বলে আক্রমণ, ব্যারাকপুর নিয়ে আশাবাদী ফিরহাদ

গতবারের মতো এবারও ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূলের প্রার্থী হিসেবে দীনেশ ত্রিবেদীর নাম ঘোষণা করলে দলের অন্দরে প্রবল বিদ্রোহ ঘোষণা করেন তৎকালীন ভাটপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল বিধায়ক তথা বর্তমান বিজেপি নেতা অর্জুন সিংহ। আর এরপরই বিজেপির কেন্দ্রীয় দপ্তরে গিয়ে তৃণমূল ছেড়ে গেরুয়া শিবিরের পতাকা হাতে তুলে নেন তিনি। এমনকি তার প্রাক্তন দল তৃণমূল সম্পর্কে একাধিক বিতর্কিত মন্তব্য করে রাজ্য রাজনীতিতে শোরগোল তুলে দেন অর্জুন বাবু।

তবে শুধু তিনি নন, তার সাথে গোটা ভাটপাড়া পৌরসভার কাউন্সিলররা লাইন দিয়ে বিজেপিতে ঢোকবার জন্য দাঁড়িয়ে আছেন বলেও অর্জুন সিংয়ের ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্যে সোরগোল পড়ে যায়। কিন্তু এবার ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বর্তমান বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিংহের খাসতালুকে দাঁড়িয়েই তাঁকে গদ্দার ও মীরজাফর বলে আক্রমণ করলেন রাজ্যের পুরো ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

সূত্রের খবর, শনিবার বিকালে ভাটপাড়া বিধানসভার কাকিনাড়া বাজারের কাছে জহর উদ্যানে তৃণমূলের সভায় উপস্থিত হন ফিরহাদ হাকিম। যেখানে উপস্থিত ছিলেন উত্তর 24 পরগনা জেলা তৃণমূল সভাপতি তথা মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, কার্যকরী সভাপতি নারায়ন গোস্বামী, যুব তৃনমূলের জেলা সভাপতি পার্থ ভৌমিক, জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক নির্মল ঘোষ, ভাটপাড়া পৌরসভার ভাইস চেয়ারম্যান সোমনাথ তালুকদার সহ তৃণমূলের অন্যান্য নেতৃত্বরা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

এদিন নাম না করে অর্জুন সিংয়ের উদ্দেশ্যে তৃণমূলের ফিরহাদ হাকিম বলেন, “দলনেত্রীর কাছ থেকে সমস্ত সুযোগ-সুবিধা নিয়ে বিধায়ক, চেয়ারম্যান জেড ক্যাটাগরির নিরাপত্তা পেয়েছিলেন। স্বার্থ দেখতে গিয়ে এখন সব ভুলে গেলেন। ওঁর নীতি আদর্শ বলে কিছু নেই। ও গদ্দার, মীরজাফর। মানুষ ওকে কখনো ক্ষমা করবে না।”

পাশাপাশি এদিনের সভা থেকে একদা তৃণমূল নেত্রীর আস্থাভাজন এবং কাছের মানুষ বলে পরিচিত বর্তমান বিজেপি নেতা মুকুল রায়কেও একহাত নিয়ে ফিরহাদ হাকিম বলেন, “কার হাত ধরে কুয়োয় ঝাপ মারলেন, তা সামনের 6 তারিখের পর অর্জুন সিং সেটা বুঝতে পারবেন।” পাশাপাশি ভাটপাড়া পৌরসভা সমস্ত কাউন্সিলর তাদের সঙ্গেই রয়েছে বলে জানান রাজ্যের পুরমন্ত্রী। এদিকে এদিনের এই সভা থেকে অর্জুন সিংহকে একহাত নেন উত্তর 24 পরগনা জেলা তৃণমূল সভাপতি তথা মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। এদিন তিনি বলেন, “দলনেত্রী ওকে বিশ্বাস করে সব কিছু দিয়েছিলেন। আমরা ওর এলাকায় হস্তক্ষেপ করতাম না। দলনেত্রীর কাছে মিথ্যে বলে ও বিজেপিতে চলে গেল।”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী জয়লাভ করবে বলে তৃণমূল আত্মপ্রত্যয়ী হলেও সদ্য প্রাক্তন তৃণমূল নেতা তথা বর্তমানে এই ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিংয়ের শক্ত ভোটব্যাঙ্কই যে তাদের মূল ভয়ের কারণ তা এদিন সেই অর্জুন সিংহকে উদ্দেশ্য করে তৃনমূলের ফিরহাদ হাকিম এবং জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের কটাক্ষে ফের আরও একবার স্পষ্ট হয়ে গেল বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!