এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > আব্দুল মান্নান ও বিকাশ ভট্টাচার্যের হাত-পা ভেঙ্গে দেবার হুমকি অনুব্রতর

আব্দুল মান্নান ও বিকাশ ভট্টাচার্যের হাত-পা ভেঙ্গে দেবার হুমকি অনুব্রতর

বীরভূমের তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অনুব্রত মন্ডল আছেন নিজের চেনা মেজাজেই। এর আগে পুলিশকে বোমা মারার নিদান বা বিরোধিতার গুড়-বাতাস খাওয়ানোর নিদান বা চরাম চরাম ঢাকের বাদ্যি শোনানোর নিদান দিয়ে খবরের শিরোনামে এসেছিলেন তিনি। কিন্তু গতকাল তিনি একেবারে হাত-পা ভেঙ্গে ফেলে রাখার নিদান দিলেন বিরোধীদের দুই পরিচিত মুখ, বিধানসভার বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান ও বিশিষ্ট আইনজীবী এবং বামনেতা বিকাশ ভট্টাচার্যকে। বোলপুরে কৃষিজমিতে নির্মাণ নিয়ে অনিচ্ছুক কৃষকদের সঙ্গে তৃণমূলকর্মীদের একপ্রস্থ বাগবিতণ্ডা হয় বুধবার, সংঘর্ষও বাধে দু-পক্ষের মধ্যে বলে খবর। সেই পরিপ্রেক্ষিতেই ঘটনাস্থলে যাচ্ছিলেন বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য, যাওয়ার কথা ছিল আবদুল মান্নানেরও। কিন্তু পুলিশের বাধায় কলকাতায় ফিরে আসতে বাধ্য হন বলে জানিয়েছেন বিকাশবাবু।
এরপরই আসরে নামেন অনুব্রত মন্ডল। পুলিশের সামনেই একের পর এক হুমকি ছুঁড়তে থাকেন। এমনকি পুলিশকেও রীতিমত হুমকি দেন বলে অভিযোগ। অনুব্রত বাবু বলেন, ‘কোন মান্নান আবদুল জানি না, সিপিএমের কোন বড় লিডার জানি না। মেরে হাত-পা ভেঙে ফেলে রেখে দেব। এখানে অনেক মানুষের পেটের ভাত হবে। মান্নান-বিকাশরা এখানে নোংরামো করতে আসছে। ওসব বরদাস্ত করব না। এরপর তিনি উপস্থিত পুলিশের দিকে আঙুল তুলে বলেন, এখানে উন্নয়ন হচ্ছে, ওসব রাজনীতি-টিতি মানব না। তারপর আরো একধাপ এগিয়ে পুলিশকে নিজের ঘড়ি দেখিয়ে হুমকি দেন, এখন কটা বাজে? চারটে পনেরো। সাতটা পর্যন্ত সময় দিলাম গ্রেফতারি না করলে, ৯টার মধ্যে গ্রামে ঢুকে যাব। সব ঘরবাড়ি ভেঙে চুরমার করে দেব। জ্বালিয়ে-পুড়িয়ে দেব সব। পুলিশকে কিভাবে ‘এগোতে’ হবে সেই দাওয়ায়ও তিনি বাতলে দেন বলে অভিযোগ। জানা যাচ্ছে তিনি পুলিশকে ‘ইন্সট্রাকশন’ দেন এই বলে যে, আগে মোটরবাইক গুলো তল্লাশি করুন। তারপর গ্রেফতার করুন। নাহলে অন্য ঘটনা ঘটিয়ে দেব। তাণ্ডব লীলা চালিয়ে দেব।
যদিও এর বিরুদ্ধে তীব্র ভাষায় প্রতিবাদ জানান বিকাশবাবু। তিনি বলেন, উনি আসলে পাগল ও গুন্ডার সমন্বয়। উনি কী বলছেন তা ওনার বোধোগম্য হচ্ছে না। বোধবুদ্ধি কিছুই নেই। ভয় দেখিয়ে কোনও লাভ নেই। গুন্ডামি করে হয়তো সাময়িক ভয় দেখানো যায়, কিন্তু তার ফল কী হবে, তা উনি বুঝতে পারছেন না। উনি একেবারেই শিশুসুলভ আচরণ করেছেন। আমরা আজ ফিরে আসতে বাধ্য হলেও, ফের যাব। দেখব কে আটকায়।

Leave a Reply

Top
Close
error: Content is protected !!