এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কলকাতার ভোটারদের ভোটের দিন নকুলদানা খাওয়ানোর বিধান দিলেন অনুব্রত মন্ডল, জল্পনা তুঙ্গে

কলকাতার ভোটারদের ভোটের দিন নকুলদানা খাওয়ানোর বিধান দিলেন অনুব্রত মন্ডল, জল্পনা তুঙ্গে



প্রায় প্রতিবারই নির্বাচনের আগে বিতর্কিত মন্তব্য করে খবরের শিরোনামে উঠে আসতে দেখা যায় বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে। এবারেও তার কোনো ব্যাতিক্রম হয়নি। পাচন, চড়াম চড়াম ঢাক ও গুড় বাতাসার পর এবারের নির্বাচনের আগে নকুলদানা খাওয়ানোর দাওয়াই দিয়েছিলেন তিনি। আর অনুব্রত মণ্ডলের নকুলদানা তত্ত্বের পেছনে প্রচ্ছন্ন হুমকি রয়েছে বলে কমিশনের কাছে অভিযোগ জানাতে দেখা গেছে বিরোধীদের।

এমনকি বিরোধীদের অভিযোগের ভিত্তিতে বীরভূমের ভোটের দিন কমিশনের পক্ষ থেকে নজরদারিও করা হয়েছিল সেই অনুব্রত মণ্ডলকে। কিন্তু তাতেও তিনি তার মতো করেই ভোট মেশিনারিকে কাজে লাগিয়েছেন। এমনকি দিনের শেষে জানিয়ে দিয়েছেন, “এবারের ভোট নকুলদানা দিয়ে বেশ ভালই হয়েছে।”

আর নিজের জেলায় ভোট হওয়ার পর এবার দক্ষিণ কলকাতায় নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে সেই নকুলদানা খাওয়ানোরই নিদান দিলেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি। সূত্রের খবর, দক্ষিণ কলকাতা লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মালা রায়ের সমর্থনে লেক মার্কেটের সামনে আয়োজিত নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখেন অনুব্রত বাবু। যেখানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের বিদ্যুৎ মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়, প্রার্থী মালা রায় সহ অন্যান্যরা। আর এখানেই বক্তব্য রাখতে উঠে বিজেপিকে কটাক্ষ করে ভোটের দিন ভোটারদের নকুলদানা খাওয়ানোর কথা বলেন তিনি।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

পাশাপাশি বেহালা পর্ণশ্রীর 131 নম্বর ওয়ার্ডে সভা করতে গিয়ে বক্তব্য রাখার সময় অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “মোদি তো কিছু দিতে পারছে না, কিন্তু আমরা নকুলদানা বিতরণ করছি।” তবে শুধু নকুলদানা খাওয়ানোর নিদানই নয়, বিজেপির বিরুদ্ধে সকলকে একজোট হয়ে লড়াই করারও আহ্বান জানান তিনি। অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে লড়াই করার মতো পাঙ্গা বিজেপির নেই। অশান্ত বাংলাকে শান্ত করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু বিজেপি ফের অশান্ত করার চেষ্টা করছে। তাই বিজেপির বিরুদ্ধে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, বীরভূমের ভোটে নকুলদানা ভালোই কাজ করেছে এহেন দাবি করা বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল এবার নিজের সেই নকুলদানা খাওয়ানোর কথা দক্ষিণ কলকাতার লোকসভা কেন্দ্রে গিয়ে সেখানেও যাতে নকুলদানা দিয়ে ভোট করানো যায় তার বার্তা দিয়ে গেলেন। যার পেছনে প্রচ্ছন্ন হুমকি মনে করতে শুরু করছে সমালোচক মহলের একাংশ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!