এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > সংখ্যালঘু ভোট ব্যাংকে ভাঙ্গন খোদ অনুব্রত গড়ে, আশঙ্কার পারদ চড়ছে বীরভূমে

সংখ্যালঘু ভোট ব্যাংকে ভাঙ্গন খোদ অনুব্রত গড়ে, আশঙ্কার পারদ চড়ছে বীরভূমে



লোকসভা নির্বাচনে গোটা রাজ্যে বিজেপি ১৮ আসন পেলেও খাতা খুলতে পারেনি অনুব্রত গড়ে। গড় ধরে রাখলেও নির্বাচনের পরেই তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন মনিরুল ইসলামের মত হেভিওয়েট সংখ্যালঘু বিধায়কদের। আর এর পরেই বীরভূমে সংখ্যালঘু ভোটব্যাংক নিজেদের দখলে আনতে মরিয়া বিজেপি।

এদিন বীরভূমের জেলা বিজেপি সভাপতি রামকৃষ্ণ রায়ের হাত ধরে মল্লারপুরে প্রায় ১০০০জন কর্মীসমর্থক তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগ দেন।যাদের বেশিরভাগ সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের।

এই যোগদান প্রসঙ্গে বিজেপি নেতৃত্বের দাবি,”যে সংখ্যালঘু ভোটের ভরসায় তৃণমূল এতদিন রাজনীতি করেছে,সেই সংখ্যালঘু সম্প্রদায় আজ বিজেপিতে যোগ দিচ্ছে।”


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

মল্লারপুরে কর্মীসমর্থক ছাড়াও বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন ময়ূরেশ্বর১ নম্বর ব্লকের ডাবুক পঞ্চায়েত প্রধান কল্যাণ গোস্বামী,উপপ্রধান পলাশ রজক সহ পাঁচ জন সদস্য ও পঞ্চায়েত সমিতির প্রাক্তন কর্মাধ্যক্ষ আমিরুল হক।

যোগদান প্রসঙ্গে আমিরুল হক জানান,”তৃণমূলের অপশাসনে নৈরাজ্য হয়েছে।কোন জায়গায় সুষ্ঠ ভাবে পরিচালনা করা যাচ্ছে না।আর এই সংখ্যালঘু নিয়ে দিদি যা খেলা খেলেছে,তার প্রতিবাদে বিজেপিতে যোগ দিয়েছি। মানুষ বিজেপিকে ভুল বুঝেছে।বিজেপির থেকে ভালো আর কোন দল নেই।আমরা বিজেপিতে যোগ দিয়েছি যাতে সংখ্যালঘুরা সব ভালো করে বুজতে পারে,আমাদের শিক্ষার হার কম, তাই তাদের বোঝাতে হবে।”

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!