এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ভাই কেষ্টকে এবার কড়া ভাষায় ধমক দিদির

ভাই কেষ্টকে এবার কড়া ভাষায় ধমক দিদির

ভাই কেষ্টকে এবার কড়া ভাষায় ধমক দিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।আজ পশ্চিম বর্ধমানের কাঁকসার প্রকাশ্য সভায় দাঁড়িয়ে দিদি অনুব্রতর উদ্দেশ্যে নাম করে বললেন বিজেপি যে ভাষায় কথা বলে তৃণমূল সেই ভাষায় কথা বলে না। তৃণমূলের এটা কালচার নয়। অন্যায়ের প্রতিবাদ জানানোর জন্য তৃণমূলের নিজস্ব ভাষা আছে। আমি কেষ্টকে লাস্ট টাইম বলে দিচ্ছি যেন এসব কথা আর না বলে । মমতার এহেন শাসন রাজনৈতিক মহলের যে কৌতুহল বাড়িয়েছে তাতে সন্দেহ নেই। আগে থেকেই অনুব্রত মন্ডল বিখ্যাত তাঁর মন্তব্যের জন্য। কখনও চরাম চরাম ,পুলিশকে বোমা মারার নিদান এই সব তো আছেই এর মধ্যে নতুন সংযোজন হলো। কদিন আগেই রাজস্থানে খুন হওয়া আফরাজুল প্রসঙ্গে তিনি বলতে গিয়ে মোদিকে আক্রমণ করেন। তিনি বলেন, “মোদি তোমার লজ্জা লাগে না ? রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রীও বিজেপির। একটা মুসলিম ছেলেকে তুমি নৃশংসভাবে হত্যা করলে। পশ্চিমবঙ্গে তোমার এই ঘটনা ঘটানোর ক্ষমতা আছে ? তোমার জিভ ছিঁড়ে নেব। কোনও মুসলমানের গায়ে হাত দেওয়ার অধিকার তোমার নেই।”এরপরেও বলেন “আমি মৃত্যুকে ভয় করি না। ৮৪ সাল থেকেই ভয় করি না। করবও না। কিন্তু অন্যায়কে প্রশ্রয় দিইনি, দেব না। আজকে রাজস্থানে যা হয়েছে, আমার জেলায় হলে সে যত বড়ই বিজেপি নেতা হোক তাকে পুড়িয়ে মেরে দিতাম। তুমি কেন মারবে? মুসলিম বলে?”যা ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক। আগেও বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য অনেক বিতর্ক হয়েছে কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীর হাত মাথায় ছিল তখন অনুব্রতর কিন্তু হঠাত্‍ করে প্রকাশ্য সভা থেকে তাঁর উদ্দেশ্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কড়া বার্তা জল্পনা তৈরি করছে।যদিও তৃণমূলের একাংশের দাবি যে বহুদিন ধরেই অভিযোগ জমা পড়ছিলো কেষ্টর নামে।আর তাতেই একটু একটু করে ক্ষুন্ন হচ্ছিলেন নেত্রী। আজ প্রকাশ করলেন। অন্যদিকে অবশ্য রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে বিজেপি যাতে কোনওরকম রাজনৈতিক ইস্যু না পায় তাই প্রকাশ্যে অনুব্রতকে শাসন করে বিজেপির মুখ বন্ধ করতে চাইলেন মমতা।বিরোধীদের অবশ্য বক্তব্য,এটা সামনে শুধু বলছেন ভেতরে ভেতরে প্রশ্রয় দিচ্ছেন। আবার কদিন পরেই নিজ মূর্তীতে ফিরবে অনুব্রত।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!