এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > অ্যানসার প্লিজ – (লাভ স্টোরি) – কলমে অপরাজিতা-পর্ব ৭

অ্যানসার প্লিজ – (লাভ স্টোরি) – কলমে অপরাজিতা-পর্ব ৭


আজ রবিবার। তেমন কোনো কাজ নেই, আজ দীপশিখা ওর বিছানাটা গোছাচ্ছিল। ওর ফোন এ একটা আননোন নাম্বার থেকে কল এলো। ফোন ধরলো দীপশিখা।

হ্যালো।

একটু গলা ঝাড়ার শব্দ, ওপার থেকে একটা গলা ভেসে এলো। – বলছি চা খাওয়া হয়েছে ? নাহলে একসাথে খেতাম তাই আরকি !

দীপশিখার বুঝতে অসুবিধা হয়নি কে,

দীপশিখা – আমার নাম্বার কথা থেকে পেলে ?

অভ্র – চিনেছো, জানতাম চিনতে পারবেই ,সারাক্ষণ যার কথা ভাবছো তার গলা একবার শুনেই চিনবে তাতে আর অস্বাভাবিক কি আছে ?

দীপশিখা – একেবারে ফালতু কথা বলবে না। নাম্বার পেলে কি করে ?

অভ্র – জোগাড় করতে হয়,

দীপশিখা – কোথা থেকে ?

অভ্র – অরিত্রদা দিলো।

দীপশিখা – কি বলে চাইলে ?

অভ্র – কি আবার , বললাম আমার বোন কলকাতা ইউনিভার্সিটিতে পড়তে চাই, সেই নিয়েই তোমার সাথে কথা বলবে।

দীপশিখা – তোমার বোন আছে?

অভ্র – না,

দীপশিখা – তবে ? সব সময় ঢপ না? যদি পরে জানতে চাই কে বোন?

অভ্র – হুম তো কি হবে? দূর সম্পর্কের কেউ হতে পারে না ? ও যা হোক বলে দেব। প্লিজ ব্লক করো না।

দীপশিখা – তোমার আর ভাই বোন নেই ?

অভ্র – না

দীপশিখা – কেন?

অভ্র – সেটা আমি কি করে বলবো , আমার বাবা মা বলতে পারবে।

দীপশিখা – আচ্ছা রাখছি আমার কাজ আছে।

অভ্র – ব্লক করবে না তো? প্লিজ।

দীপশিখা – রাখো।

অভ্র – এবার হোয়াটস্যাপ এ পিং করছি

দীপশিখা – না

অভ্র – কেন?

দীপশিখা – এমনি

অভ্র – ওকে ম্যাম , আপনি যখন অনুমতি দেবেন।

কথা শেষ হলো। দীপশিখা নাম্বারটা সেভ করতে গিয়েও করলো না , কিন্তু এটা কি ঠিক হলো?

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

——————————————————————————————————————————————–

কিছুক্ষন পর ফেসবুকে অভ্র – হাই।

দীপশিখা- বলো

অভ্র – রাগ করোনি তো ?

দীপশিখা – লাভ আছে ?

অভ্র – যাক আমার সাথে থেকে থেকে বুঝেছো তাহলে

দীপশিখা – একটু বেশি হয়ে গেলো না ?

অভ্র – ও তাহলে অন্য কথা বলি ?

দীপশিখা – বলো,

অভ্র – তোমার বাড়িতে কে কে আছে?

দীপশিখা – বাবা , মা, জেঠু, আর জেঠুর দুই ছেলে আর দুই বৌদি,  বড়দার ছেলে, পিসির মেয়ে,

অভ্র – বোন?

দীপশিখা – কেন? ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠাবে ?

অভ্র – আরে এমনি,

দীপশিখা – দিদি

অভ্র – তারমানে তোমার দিদির বিয়ে না হলে তোমার বিয়ের কোনো সম্ভাবনা নেই, বলছি ছেলে দেখবো? নাকি বাড়ি থেকে দেখছে?

দীপশিখা – এক মিনিট, আমার বিয়ে নিয়ে তোমার এত কিসের চিন্তা ?

অভ্র – বা রে আমার বিয়েটাও যে হবে না তাহলে ?

দীপশিখা – তোমাকে কে বললো আমি তোমাকে বিয়ে করবো।

অভ্র – আমি বলছি , চেষ্টা করে যাচ্ছি তো সফল হবোই, “হুম হোঙ্গে কামিয়াব, (৩)একদিন”

দীপশিখা – শোনো

অভ্র – বলো, কবে থেকে তো শুনতে চাইছি, তুমিই বলছো না

দীপশিখা – ব্লক করবো?

অভ্র – কেন?

দীপশিখা – কেননা ফালতু বকছো।

অভ্র – আমি সিরিয়াস , তুমিই ক্যাজুয়ালি নিচ্ছ।

দীপশিখা – একটা কথা জিজ্ঞাসা করবো?

অভ্র – বলো

দীপশিখা – তুমি আমার সাথে মজা করছো নাকি সত্যিই কিছু ?

অভ্র – তোমার কি মনে হয় ?

দীপশিখা – জানিনা বুঝতে পারিনা বলেই জানতে চাইছি।

অভ্র – সত্যি, আমি তোমার প্রেমে পড়েছি, ভালোবাসি কিনা জানিনা। মনে হয় খুব ভালোবাসি , তাই হারাতে খুব ভয় পাই।  সিন করেছে কিন্তু হঠাৎ করে অফলাইন হয়ে গেল, নেট নেই ? অনেকেক্ষন পরেও অফলাইন, যা বাবা কি হলো আবার? কল করবে? রাগ করেনি তো ? একরাশ চিন্তা নিয়ে রবিবারের দুপুর কাটছে অভ্রর।

 

অ্যানসার প্লিজ – (লাভ স্টোরি) – কলমে অপরাজিতা-পর্ব ৬

 

অ্যানসার প্লিজ – (লাভ স্টোরি) – কলমে অপরাজিতা-পর্ব ৮

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!