এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহের প্রথম বঙ্গ-সফরেই হেভিওয়েট তৃণমূল বিধায়কের দলবদল করিয়ে ‘তোফা’

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহের প্রথম বঙ্গ-সফরেই হেভিওয়েট তৃণমূল বিধায়কের দলবদল করিয়ে ‘তোফা’

এর আগে বাংলায় সংগঠন বৃদ্ধির লক্ষ্যে বারবার এসেছেন অমিত শাহ – কিন্তু তখন এসেছিলেন শুধুমাত্র বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি হিসাবে। ফলে, তাঁকে পদে পদে বাধা দিয়েছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। কিন্তু, সব বাধাকে অতিক্রম করে বাংলা থেকে ১৮ টি আসন ছিনিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি, নরেন্দ্র মোদিকেও দ্বিতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কুর্সিতে বসিয়েছেন অমিত শাহ। ফলে, বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতিত্বের সঙ্গে সঙ্গে যোগ হয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর গুরু দায়িত্ব।

আর তারফলে বাধা তো দূরের কথা, স্বয়ং তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছুটছেন তাঁর দরজায় ‘উন্নয়নের স্বার্থে’! আর এবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হওয়ার পর, প্রথমবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ক্ষমতাসীন রাজ্যে পা রাখতে চলেছেন তিনি। ফলে, তাঁর সেই সফর নিয়ে আগে থেকেই জল্পনা ছিল – কেননা তিনি আসছেন বাঙালির সব থেকে বড় উৎসব দুর্গাপুজোর সময়। ফলে, তাঁকে তৃণমূল কেমন ‘আপ্যায়ন’ করে তা নিয়ে জল্পনা ছিলই। এমনকি, তাঁর যে পুজোর উদ্বোধন করার কথা ছিল – সেখানেও একাধিক ‘দেওয়াল’ খাড়া করার চেষ্টা চলছিল।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

কিন্তু, কেন্দ্রে দ্বিতীয়বারের জন্য বিজেপিকে ক্ষমতায় আনার পরে, তাঁর লক্ষ্য যে নবান্নের মসনদ স্পষ্ট করে দিলেন অমিত শাহ। কেননা, তাঁর সফরকালেই তাঁর জন্য এক বিশেষ তোফার ব্যবস্থা করেছেন বঙ্গ-বিজেপির নেতারা। এবার অমিত শাহের হাত ধরে বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন তৃণমূলের হেভিওয়েট বিধায়ক সব্যসাচী দত্ত। লোকসভা নির্বাচনের আগে গভীর রাতে মুকুল রায়কে লুচি-আলুরদম খাইয়ে যে জল্পনা ও বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছিল, এবার অবশেষে গেরুয়া যোগের মাধ্যমে তা পূর্ণতা পেতে চলেছে।

তৃণমূলে থেকেই তৃণমূলের ঘোষিত নীতির বাইরে গিয়ে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছিলেন সব্যসাচী দত্ত। যেন চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ছিলেন, দেখি শাস্তি দাও, কত ক্ষমতা তোমাদের! কিন্তু, প্রতিবারেই তৃণমূল নিশ্চুপ থেকে, অস্বস্তির হাত থেকে বাঁচার চেষ্টাই করেছে। আর তাই এবার ‘দাদা’ মুকুল রায়ের দেখানো পথেই ‘ভাই’ সব্যসাচী দত্ত গায়ে গেরুয়া নামাবলী চাপাতে চলেছেন। সূত্রের খবর, অমিত শাহ নেতাজি ইন্ডোরে যে এনআরসি নিয়ে সভা করবেন – সেখানেই তাঁর হাত থেকে গেরুয়া পতাকা নিয়ে বিজেপিতে যোগ দেবেন সাব্যসাচীবাবু।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!