এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > গ্রেফতার করা হলো সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া আনিসুর রহমানকে

গ্রেফতার করা হলো সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া আনিসুর রহমানকে



কয়েকদিন আগেই মুকুল রায়ের হাত ধরে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন আনিসুর রহমান। গতকাল গভীররাতে মেদিনীপুরের একটি নার্সিংহোম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।জানা গেছে যে , আনিসুরবাবুর সাথে তমলুক থানা এলাকার শ্রেয়া দাস নামে এক যুবতির প্রণয়ের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু পরে তাদের সম্পর্ক ভেঙে যায়। জন্য গেছে কয়েকদিন আগে শ্রেয়াদেবী আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেন তাঁকে মেদিনীপুরের একটি নার্সিংহোমে ভার্টি করা হয় এবং সেখানেই তাঁর চিকিৎসা চলছে। শ্রেয়াদেবীর পরিবার মেদিনীপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করার পাশাপাশি স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের সাহায্য চান ফলে বিষয়টিতে হস্তক্ষেপ করেন তৃণমূল নেতারা।

নোয়াপাড়ায় মঞ্জু বসুর বিজেপির প্রার্থী না হওয়া নিয়ে অবশেষে মুখ খুললেন মুকুল রায়

নার্সিংহোমে এসে তৃণমূল নেতারা আনিসুরবাবুকে ডেকে পাঠান এবং আনিসুরবাবু সেখানে এলে তাকে ঘিরে ধরা হয় ও নার্সিংহোমের একটি রুমে আটকে রেখে তাকে জিগ্যাডসাবাদ করা হয়। এরপর তৃণমূল কর্মীরা বন্দেমাতরম স্লোগান তোলেন পাশাপাশি আইসি সুশান্ত রাজবংশীর উপর বিক্ষোভ দেখান। তৃণমূলের তরফ থেকে বলা হয় আগে আমাকে দলীয় অফিস থেকে তুলে এনে মেরেছে। বড়বাবুর দম আছে এখন ? চামড়া ছাড়িয়ে দেব। অনেক অত্যাচার সহ্য করেছি। মেদিনীপুর শহরে কাজ করতে এলে তৃণমূলকে রেখে কাজ করতে হবে। অন্য কিছু বরদাস্ত করা যাবে না।পরিস্থিতি সমকলাতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ঘটনাস্থলে আসেন তাকে ঘিরেও বিক্ষোভ দেখানো হয়। এরপর রাত ২ তো নাগাদ আনিসুরবাবুকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁকে পুলিশভ্যানে তোলার সময় তৃণমূলের কর্মীরা চড়াও হন আনিসুরবাবুর উপর। পুলিশের সামনেই মারধর চলে বলে অভিযোগ। তারপর কোনোক্রমে তাঁকে পলিশভ্যানে তুলে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।তবে কি কি ধারায় মামলা করা হবে বা কি কি অভিযোগ আনা হয়েছে তা এখনো জানা যাই নি। যদিও বিজেপির তরফ থেকে এই নিয়ে এখনো অব্দি কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!