এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মমতার রক্তচাপ বাড়িয়ে107 জন বিধায়কের তালিকা অমিত শাহকে জমা দিলেন মুকুল রায়, জোর জল্পনা

মমতার রক্তচাপ বাড়িয়ে107 জন বিধায়কের তালিকা অমিত শাহকে জমা দিলেন মুকুল রায়, জোর জল্পনা

লোকসভা নির্বাচনে তার হাত ধরেই বিজেপি বাংলায় 18 টা আসন নিজেদের দখলে রেখেছে। আর বাংলায় গেরুয়া শিবিরের অভূতপূর্ব ফলাফল করার পরই তৃণমূলত্যাগী বিজেপি নেতা মুকুল রায় তৃণমূলের হেভিওয়েট জনপ্রতিনিধিদের গেরুয়া শিবিরে যোগদান করাতে শুরু করেন। যার ফলে একাধিক পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি এমনকি একটি জেলাপরিষদও বিজেপির দখলে চলে আসে।

শুধু তাই নয়, একাধিক বিধানসভার বিধায়কও গেরুয়া শিবিরের পতাকা ধরে নেন। যার জেরে প্রবল অস্বস্তিতে পড়ে রাজ্যের শাসক দল। তবে শাসক দল থেকে বিভিন্ন ব্যক্তিদের গেরুয়া শিবিরে যোগদান করানো হলেও তাদের অনেকেই দুর্নীতিগ্রস্ত, ফলে দলে বেনোজল ঢুকছে বলে এই দলবদলের অনুষ্ঠানের বিরোধিতা করতে দেখা যায় বিজেপির একাংশকে। যার জন্য বর্তমানে অন্য দল থেকে বিজেপিতে যাওয়ার প্রকোপ কমেছে।

লাভপুরের মনিরুল ইসলাম থেকে শুরু করে দক্ষিণ দিনাজপুরের বিপ্লব মিত্র, এই ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে একসময় বিজেপির নেতা কর্মীদের মূল লড়াই ছিল। ফলে এখন দলের সুদিনে এই সমস্ত ব্যক্তিরা বিজেপিতে এসে দলের পুরোনো কর্মীদের ব্রাত্য রেখে দলের সর্বনাশ করতে পারেন বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন গেরুয়া শিবিরের একাংশ।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

যার পরে সেই দলবদলের পালা কমলেও হঠাৎই এক সাংবাদিক বৈঠকে বিজেপি নেতা মুকুল রায় দাবি করেন যে, তৃণমূল সহ বাম এবং কংগ্রেসের মোট 107 জন বিধায়ক বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জন্য উদগ্রীব হয়ে রয়েছেন। যে ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়।

অনেকেই বলেন, এবার হয়ত এই সমস্ত বিধায়কদের ধীরে ধীরে দলে যোগদান করাবেন মুকুল রায়। কিন্তু যোগদান করানোর ব্যাটন যে আর তার হাতে নেই, তা এদিন কার্যত স্পষ্ট করে দিলেন সেই বঙ্গ বিজেপির চাণক্য। সূত্রের খবর, এদিন এই 107 জন বিধায়কের বিজেপিতে যোগ দেওয়া প্রসঙ্গে সাংবাদিক বৈঠকে মুকুল রায় বলেন, “আমি এই 107 জনের তালিকা অমিত শাহ, কৈলাস বিজয়বর্গীয় এবং শিবপ্রকাশজীকে দিয়েছি। অমিতজিকে বলেছি, এই তালিকার সকলে বিজেপিতে আসতে চান। এবার আপনারা ঠিক করুন, কাকে নেওয়া হবে বা কাকে নেওয়া হবে না।”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, দলে বেনোজল ঢোকানোয় এখন কিছুটা হলেও বিজেপিতে কোণঠাসা রয়েছেন মুকুল রায়। আর তাইতো দলে কোনো জনপ্রতিনিধিকে যোগদান করানোর আগে এখন কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের ভরসায় থাকতে হচ্ছে তাকে। আগের মত নিজে আর কোনো সিদ্ধান্তই নিতে পারছেন না।

এদিন এই প্রসঙ্গে মুকুল রায় বলেন, “আমি কখনই অমিত শাহজিকে না জানিয়ে কাউকে দলে যোগদান করাইনি। এবার সংখ্যাটা অনেক বেশি বলে তালিকা তৈরি করে তার কাছে জমা দিয়েছি।” তবে তিনি যাই বলুন না কেন, দলবদলের ক্ষেত্রে খোলা হাতে তিনি যে আর ব্যাটিং করতে পারছেন না, তা এদিন বঙ্গ বিজেপির চাণক্য মুকুল রায়ের কথা থেকে কিছুটা হলেও স্পষ্ট হয়ে গেল বলে মত বিশ্লেষকদের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!