এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > অমিত শাহের বক্তব্য নিয়ে পার্থ চ্যাটার্জির দাবি – সরকারি কর্মচারী, শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি হয়েছে!

অমিত শাহের বক্তব্য নিয়ে পার্থ চ্যাটার্জির দাবি – সরকারি কর্মচারী, শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি হয়েছে!



গত 19 শে জানুয়ারি কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডের সভা মঞ্চ থেকে দেশের প্রায় সমস্ত বিজেপি বিরোধী দলের নেতা-নেত্রীদের নিয়ে কেন্দ্র থেকে আগামী লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে সরানোর ডাক দিয়েছেন তৃনমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আর তৃণমূলের এই ব্রিগেড সমাবেশের ঐতিহাসিক জনসমাগম দেখে কিছুটা হলেও চাপে পড়েছে রাজ্যের গেরুয়া শিবির। কিন্তু গতকাল সেই তৃণমূলের ব্রিগেড সমাবেশের পাল্টা হিসেবে মালদহে সভা করতে এসেছিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। আর যে সভা থেকে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের উদ্দেশ্যে তীব্র কটাক্ষ করেছেন তিনি।

সরকারি কর্মচারীদের অনিশ্চয়তার কথা উল্লেখ করে রাজ্যের শাসকদলের ভোটব্যাংকে ফাটল ধরানোর জন্য বিজেপির অমিত শাহ তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে গতকাল তীব্র সুর চড়িয়েছিলেন।

বাংলায় সরকারি কর্মী, শিক্ষকদের বেতন নিয়ে বড়সড় ক্ষোভ রয়েছে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে। আইন আদালতে সেই নিয়ে মামলাও চলছে। আর এদিন সেই ক্ষোভকে আরও একবার উস্কে দিয়ে সাথেই প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন বাংলায় আচ্ছেদিন আনার।
এদিন তিনি মমতা সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে বলেছিলেন, ” সপ্তম বেতন কমিশন চালু হয়েছে এখানে এখনো পঞ্চম বেতন কমিশন চলছে। এরপরেই জনগণের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন ছুড়ে দেন যে সপ্তম বেতন কমিশন অনুযায়ী কর্মীদের বেতন চাই কি চাই না।?
সাথেই দাবি করেছিলেন যে ভারতীয় জনতা পার্টির সরকার বানান তাহলে শপথের প্রথম ক্যাবিনেটে আমরা আগে সপ্তম বেতন কমিশিনের কাজ শুরু করবো। ”

এরপরেই বলেছিলেন যে, ” সরকারি কর্মীদের ডিএ ৪৯ % কম অর্ধেক , কেন? কোথায় গেলো টাকা ? বলো কোথায় গেলো? টাকা ওখানে চলে গেছে , বের করতে হবে।

আর অমিত শাহর সমস্ত কটাক্ষের জবাব দিতে এদিন মাঠে নেমে পাল্টা বিজেপির উদ্দেশ্যে তোপ দাগলেন রাজ্যের তৃণমূল মহাসচিব তথা শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিন তিনি বলেন, “রাজ্যের প্রকল্পে আর্থিক বরাদ্দ ছাটাই করে চলেছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন নোট বন্দির ফলে আর্থিক উন্নতি হবে, সবটাই আজ মিথ্যা বলে প্রমাণিত হয়েছে। অমিত শাহ রাজ্যের প্রকল্পের ব্যাপারে অনেক কথা বললেও কেন্দ্র যে আর্থিকভাবে অবরোধ তৈরি করেছে তার কথা উনি একবারও বলেননি। বরং উনি রাজ্যের সাফল্যকে খাটো করে দেখার চেষ্টা করছেন। আসলে শূন্য কলসি বাজে বেশি।”

সম্প্রতি ইভিএম নিয়ে দেশজুড়ে চলা বিতর্ক প্রসঙ্গেও এদিন মুখ খোলেন তৃণমূল মহাসচিব। তিনি বলেন, “ইভিএম ত্রুটিমুক্ত নয়। বিভিন্ন দেশে এই ইভিএম অচল। তাই এই কারচুপির আশঙ্কাকে উড়িয়ে দেওয়া যায় না।” পাশাপাশি ধর্মীয় বিভাজনের রাজনীতি উসকে দিতেই বিজেপি এই নাগরিকত্ব বিল এনেছে বলেও এদিন গেরুয়া শিবিরের উদ্যেশ্যে কটাক্ষ ছুড়ে দেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!