এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > অমিত শাহের সভা আটকাতে মরিয়া রাজ্য প্রশাসন,পাল্টা মাস্টারস্ট্রোকে বাজিমাতের চেষ্টায় গেরুয়া শিবির

অমিত শাহের সভা আটকাতে মরিয়া রাজ্য প্রশাসন,পাল্টা মাস্টারস্ট্রোকে বাজিমাতের চেষ্টায় গেরুয়া শিবির

বিজেপির সর্বভারতীয় সভপতি অমিত শাহের হেলিকপ্টার নামার জন্য মালদা বিমানবন্দরে হেলিপ্যাড তৈরির অনুমতি মিলল না মালদা জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে। বিমানবন্দরে সংস্কার চলছে,এই অজুহাতেই বিজেপির আবেদন খারিজ করে দেয় মালদা জেলা প্রশাসন। তবে চুপ করে বসে নেই গেরুয়াশিবির কর্তারাও। বিকল্প হিসাবে নারায়ণপুরে বিএসএফের হ্যালিপ্যাডকেই নির্বাচন করেছে জেলা বিজেপি নেতৃত্ব। হেলিপ্যাড ব্যবহারের অনুমতি চেয়ে বিএসএফের কাছে আবেদনপত্র পাঠানো হয়েছে বিজেপির পক্ষ থেকে।

প্রসঙ্গত,দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের পর বাংলার বুকে রথযাত্রার অনুমতি না পেয়ে আশহত হয়ে পড়েছিল বিজেপি। তাই রথযাত্রার বিকল্প কর্মসূচি হিসাবে ২২,২৩,২৪ জানুয়ারি পশ্চিমবঙ্গে ‘গনতন্ত্র বাঁচাও’ সভা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিজেপি। প্রথম সভাটি হচ্ছে মালদহে। সাহাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের নিত্যানন্দপুর মাঠে আয়োজিত এই সভায় উপস্থিত থাকবেন বিজেপি’র সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ সহ তাবড় তাবড় কেন্দ্রীয় নেতৃত্বরা।

এসব ভিভিআইপিদের হেলিকপ্টার নামার জন্য অনুমতিই দিল না জেলা প্রশাসন। কিন্তু বিমানবন্দরে কাজ চলছে এই অজুহাতকে সামনে রেখে বিজেপির আবেদন খারিজ করে দেয় মালদহ জেলা শাসক। অথচ গত বুধবারই মালদা বিমান বন্দরে হেলিকপ্টারের ওঠা-নামা দেখা গিয়েছে।

শুধুমাত্র বিজেপির সভায় ব্যাঘাত ঘটানোর জন্য স্বতপ্রণোদিতভাবে তৃণমূল এটা করছে বলেই দাবী করলেন বিজেপির উত্তরবঙ্গ কমিটির কনভোনার রথীন্দ্রনাথ বসু। তবে প্রশাসনের বাধাকে উপেক্ষা করে ফের চেষ্টায় নেমেছে গেরুয়াশিবির। বিজেপি’র জেলা সভাপতি সঞ্জিত মিশ্র জানালেন,মালদা বিমানবন্দরের বিকল্প হিসাবে নারায়ণপুরের বিএসএফ ক্যাম্পের হেলিপ্যাডকে বাছা হয়েছে। এখানেই বিজেপির হাইকমান্ডার অমিত শাহ এবং উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের হেলিকপ্টারকে নামানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

 

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

সেখান থেকেই সড়ক পথে বাইপাস ধরে সাহাপুর নিত্যানন্দপুরের সভায় যোগ দেবেন বিজেপির এই হেভিওয়েটরা। এ ব্যাপারে নারায়নপুর বিএসএফের সঙ্গে প্রাথমিক কথাবার্তা হয়েছে বলেই জানান তিনি। দলের তরফ থেকে বিএসএফকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। সেই চিঠি তাঁরা ফ্যাক্স মারফত দিল্লির অফিসে পাঠানো হয়েছে এমনটাই জানা গেল বিজেপি সূত্রের খবরে।

উল্লেখ্য,রাজ্যসরকার হেলিপ্যাড না দিলেও কেন্দ্রের সহযোগিতায় বিএসএফের মাধ্যমে হেলিপ্যাডের ব্যবস্থা করে মাষ্টারস্ট্রোক দিতে চাইছে দিলীপ ঘোষেরা। সম্প্রতি রথযাত্রার অনুমতি দেওয়া নিয়েও বিজেপির প্রতি অসহযোগী আচরণের ছবি তুলে ধরেছিল রাজ্যসরকার। ফের বিজেপির কর্মসূচির জন্য হেলিপ্যাড দেওয়া নিয়ে একইধরণের মনোভাব প্রকাশ্যে আনল তৃণমূল। তবে রাজ্যসরকারের এধরণে আচরণে বিন্দুমাত্রও চিন্তিত নয় রাজ্যবিজেপি কর্তারা।

আর কোনোভাবেই লোকসভা ভোটের আগে তৃণমূলকে বিজেপির কর্মসূচিতে ব্যাঘাত ঘটাতে দেবে না এমনটাই সংকল্প করে তাঁরা। আর সেজন্যেই কেন্দ্রের সাহায্য নিয়ে হেলপ্যাডের ব্যবস্থা করে বিজেপিকে যোগ্য জবাব দেওয়ার উদ্যোগ করলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি। জেলা বিজেপি সূত্রের খবর,মালদহের ‘গনতন্ত্র বাঁচাও’ কর্মসূচীকে ঘিরে দলীয় তৎপরতা তুঙ্গে রয়েছে এই মুহূর্তে। ২২ জানুয়ারি দুপুর ১২টা নাগাদ সর্বভারতীয় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ পুরাতন মালদহের সাহাপুর নিত্যানন্দপুর মাঠে ‘গণতন্ত্র বাঁচাও’ সভায় যোগ দেবেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!