এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > অমিত শাহ কলকাতা থেকে প্রার্থী হলে বাংলার ফল ২০১৪- এর উত্তর প্রদেশের মতো হবে বলে আশাবাদী দিলীপ

অমিত শাহ কলকাতা থেকে প্রার্থী হলে বাংলার ফল ২০১৪- এর উত্তর প্রদেশের মতো হবে বলে আশাবাদী দিলীপ

২০১৯ এর আগত লোকসভা নির্বাচন নিয়ে শাসক-বিরোধী তরজা এখন তুঙ্গে।কিছুদিন আগেই বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ বিজেপি কে নির্দিষ্ট লক্ষ্য স্থির করে দিয়েছিলেন। রাজ্য বিজেপির উদ্দেশ্যে তিনি বলেছিলেন রাজ্যের ৪২ টি আসনের মধ্যে অন্তত ২২ টি আসন নিজেদের দখলে আনতেই হবে।

অন্যদিকে সম্প্রতি, তৃণমূলের যুবরাজ যুব তৃণমূল সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপির উদ্দেশ্যে খোলাখুলি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে বলেন,”রাজ্যের যে কোন আসন থেকে নরেন্দ্র মোদী বা অমিত শাহ লড়াই করে জিতে দেখাক। তাহলে বুঝবো ওনাদের রাজনৈতিক ক্ষমতা আছে।”

এবার বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের কথায় দেখা গেল সেই চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা করার প্রবণতা। সম্প্রতি দীলিপবাবুর কথা নিয়ে জল্পনা ছড়িয়েছে বঙ্গ রাজনীতির অন্দরে। অভিষেকে চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা করার মানসিকতা সম্প্রতি নিয়েই তিনি বলেন,”যদি মোদীজি বারানসি ছেড়ে পুরি থেকে লড়াই করতে পারেন তবে অমিত শাহ কেন কলকাতা থেকে লড়াই করতে পারবেন না?২০১৪-এর নির্বাচনে থেকে মোদীজি লড়ার ফলে উত্তরপ্রদেশে কি হয়েছিল তা সারা দেশ জানে।”

যদিও তিনি ঘোষের এই মন্তব্যকে তৃণমূল নেতৃত্ব খানিকটা হাস্যকর হিসেবেই নিচ্ছে। তাদের দাবি, বাংলায় যে কোন আসন থেকেই লড়তে পারেন অমিত শাহ। ফল টাও হাতেনাতেই পাবেন। যদিও অমিত শাহের কলকাতা থেকে ভোটে দাঁড়ানো নিয়ে এখনো পর্যন্ত কোন সরকারি খবর পাওয়া যায়নি।

এমনকি নরেন্দ্র মোদির পুরি থেকে দাঁড়ানো এখনো নিশ্চিত না।দিলীপ ঘোষ এর কথা অনুযায়ী,”দলের কর্মীরা আশা করছে আমি সেই আশার কথাই কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে তুলে ধরবো। আশা করি অমিত শাহ বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করবেন।”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০১৯- এর লোকসভা নির্বাচনে বাংলাকে পাখির চোখ করে এগোতে চাইছে বিজেপি। সেই উদ্দেশ্যে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহেই রাজ্যজুড়ে শুরু হবে বিজেপির রথযাত্রা।দক্ষিণবঙ্গের তারাপীঠ ও গঙ্গাসাগর এবং উত্তরবঙ্গের কোচবিহার থেকে সারা রাজ্যে মোট তিনটি রথ বেরোবে। এবং প্রত্যেকটি রথই কলকাতায় এসে যাত্রা শেষ করবে। এই রথযাত্রায় মাধ্যমে রাজ্য বিজেপি রাজ্যবাসীর কাছে কেন্দ্র সরকারের সাফল্য তুলে ধরবেন।

পাশাপাশি রথ যাত্রার মাধ্যমে তারা গণতন্ত্র বাঁচানোর ডাকও দিয়েছেন বলে জানাচ্ছেন দিলীপ ঘোষ। যদিও এখনো পর্যন্ত রাজ্য প্রশাসনের কাছ থেকে রথ যাত্রার কোন অনুমতি পায়নি বিজেপি। রথযাত্রার প্রসঙ্গে তৃণমূল এর বক্তব্য,বিভেদের রাজনীতি করে রাজ্যের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে চায় বিজেপি।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

অন্যদিকে নির্বাচনে কলকাতা থেকে অমিত শাহকে দাঁড়ানোর আহ্বান করে দিলীপ ঘোষ বুঝিয়ে দিলেন যে তৃণমূলের শক্ত ঘাঁটি বাংলায় তারা এবার নিজেদের পায়ের তলার জমিটা শক্ত করতে চায়।আর তাই অমিত শাহ মতো একজন শীর্ষস্থানীয় নেতাকে বাংলা থেকে দাঁড় করিয়ে ভোট বাক্সে তার প্রভাব ফেলতে চায় বিজেপি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!