এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > অমিত শাহের কড়া দাওয়াইয়ে বিশিষ্টজনের খোঁজে ছুটছেন হেভিওয়েট নেতারা

অমিত শাহের কড়া দাওয়াইয়ে বিশিষ্টজনের খোঁজে ছুটছেন হেভিওয়েট নেতারা

দলের এতদিনের ভাবমূর্তি সাম্প্রতিক কালের কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা এবং বিরোধীদের সমালোচনায় আংশিক টলমল হলেও যে কোনো পরিস্থিতিতেই হাল ছাড়তে নারাজ গেরুয়া শিবির। প্রাকলোকসভা নির্বাচনী পরিস্থিতিতে তাই দলীয় নেতাদেরকে দলীয় সংগঠন মজুবত করার লক্ষ্যে বিশেষ দায়িত্বভার অর্পণ করছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। শুধু দলীয় সংগঠন মজবুতই নয় জলগনের কাছে নিজেদের ভাবমূর্তি অক্ষুণ্ণ রাখতেই বিজেপির এই পদক্ষেপ বলে রাজনৈতিক মহল মনে করছে। এই উদ্দেশ্যে অমিত শাহের নির্দেশে বিজেপির সব নেতাকে ২৫ জন করে বিশিষ্ঠ মানুষএর সাথে সাক্ষাৎ করতে হবে এবং তাদের হাতে তুলে দিতে হবে কেন্দ্রের মোদী সরকারের চার বছরে উন্নয়ন মূলক সমস্ত কাজের সাফল্যের লিপিবদ্ধ পুস্তিকা। এই সম্পূর্ণ কর্মসূচীর নাম দেওয়া হয়েছে  ‘সম্পর্ক ফর সমর্থন’।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

ইতিমধ্যেই কপিল দেব, মাধুরী দীক্ষিত, রতন টাটাদের সাথে সাক্ষাৎ করে বিজেপি নেতারা এই পুস্তিকা প্রদান করেছেন। বিজেপির সকল নেতাই এখন তাঁদের লক্ষ্য পূরণ সংখ্যা ২৫ কে কেন্দ্র করে অবিরাম পরিশ্রম করে চলেছে। এই লক্ষ্যপূরণের কারণে ব্যাপারটা এমন দিকে যাচ্ছে যে একই ব্যাক্তিকে একাধিক নেতা ফোন করে বসছেন। যেমন দিল্লী থেকে এদিন মুকুল রায় জানালেন ”কলকাতায় গিয়ে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করব।” কিন্তু তাঁর আগেই রাহুল সিনহা প্রবীন এই বিশিষ্ঠ অভিনেতার সাথে তাঁর সাক্ষাৎ পর্বটি সেরে ফেললেন। দলীয় নেতাদের মধ্যে শীর্ষ নেতৃত্বের তরফে নির্দিষ্ট করা এই লক্ষ্যপূরণের জন্যে সকলেই প্রায় অত্যন্ত বিচলিত। এমনকি দেখা যাচ্ছে এক জন বিশিষ্ঠ মানুষকে কোনো বিজেপি নেতা স্থির করে রাখলেও তিনি সেই বিষয়ে প্রকাশ্যে কোনো মন্তব্যই করছেন না পাছে তাঁর কাজ অন্য কেউ করে ফেলে। এই প্রসঙ্গে  অমিত শাহের ঘনিষ্ঠ এক নেতা জানালেন চ্যালেঞ্জ তো এটাই । দেশের মধ্যে বিশিষ্ঠ মানুষের কোনো অভাব নেই। কিন্তু যাঁরা দেখা করতে কুণ্ঠিত বা যাঁরা মোদী সরকারের সমালোচনা করেন, তাঁদের কাছে পৌঁছে যাওয়াটাই লক্ষ্য। ঐ নেতা আরোও জানালেন এই কর্মসূচির মাধ্যমে তো কাউকে বিজেপিতে যোগ দিতে বলা হচ্ছে না। শুধু বিশিষ্ট জনের কাছে সরকারের সাফল্যএর তালিকা পেশ করা হচ্ছে। সরকারের ওপরে তাঁদের কারোর যদি কোনোরকম ক্ষোভ অসন্তোষ থাকে সেটা ও গুরুত্ব সহকারে শোনা হচ্ছে। এই অসন্তোষের কারণ গুলি যদি দলের উদ্যোগে সংশোধন করা সম্ভব হয় সেই বিষয়েও ভাবনা চিন্তা করা হবে তিনি জানালেন।

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!