এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বর্ধমান > লোকসভার কঠিন লড়াই জিতেই দুর্গাপুর জুড়ে গেরুয়া ভিত শক্ত করতে কাজ শুরু আহলুওয়ালিয়ার

লোকসভার কঠিন লড়াই জিতেই দুর্গাপুর জুড়ে গেরুয়া ভিত শক্ত করতে কাজ শুরু আহলুওয়ালিয়ার

ভোটের সময় প্রচারপর্বে এসে বিভিন্ন নেতা-নেত্রীরা ভোট বৈতরণী পার হওয়ার জন্য সাধারণ মানুষের কাছে নানা প্রতিশ্রুতি দেন। কিন্তু বাস্তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মসনদে বসার পরে তারা তাদের দেওয়া সেই প্রতিশ্রুতির বিন্দুমাত্র পালন করেন না বলে বিভিন্ন সময়ই অনুযোগ জানাতে দেখা গেছে জনতা জনার্দনকে।

কিছুদিন আগেই লোকসভা নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। আর এই লোকসভা নির্বাচনে প্রচারপর্বে রাজ্যে শাসক দল তৃণমূল বনাম বিজেপির মধ্যে মূল লড়াইয়ে তাদেরকে ক্ষমতায় আনলে এবং তাদেরকে সাংসদকে করলে তারা প্রকৃত উন্নয়ন করবেন বলে দাবি করেছিল গেরুয়া শিবির।

সেইমতো রাজ্যে এবার বিজেপি 18 টি আসন লাভ করেছে। অন্যদিকে অনেকটাই আসন সংখ্যা কমেছে তৃণমূলের। আর এই জয়লাভের পর একদিকে নিজেদের সংগঠনকে আরও পাকাপোক্ত করা এবং অন্যদিকে সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করার শপথ নিতে দেখা গেল বর্ধমান দুর্গাপুর কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ এসএস আলুওয়ালিয়াকে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

cসূত্রের খবর, রবিবার বর্ধমান দুর্গাপুর কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থীকে জয়ী করানোর জন্য সাধারণ মানুষকে ধন্যবাদ জানিয়ে একটি বিজয় মিছিল করে বিজেপি। যেখানে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, বর্ধমান দুর্গাপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি নবনির্বাচিত সাংসদ এসএস আহলুওয়ালিয়াও।

বেনাচিতির স্টিল পার্ক থেকে ভিরিঙ্গি মোড় পর্যন্ত এই বিজয় মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। আর এরপর বিধাননগরে একটি বিজেপির দলীয় অফিস উদ্বোধন করেন বর্ধমান দুর্গাপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ এসএস আহলুওয়ালিয়া। সেখানেই তিনি বলেন, “আমি বর্ধমান এবং দুর্গাপুরের হারানো গৌরব ফিরিয়ে নিয়ে আসব। হিন্দুস্তান ফার্টিলাইজার খোলার দাবিতে আগেই চিঠি করেছিলাম। কিন্তু তখন আমি এই এলাকার সাংসদ ছিলাম না। এখন এই এলাকার সার্বিক উন্নয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করব। দুর্গাপুর ব্যারেজ সংস্কারের জন্যও কাজ করা হবে।”

এদিকে এদিন এই বর্ধমান দুর্গাপুর কেন্দ্রে বিজেপিকে জয়যুক্ত করার জন্য বিজয় মিছিলে উপস্থিত হয়ে সাধারণ মানুষকে ধন্যবাদ জানিয়ে পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেখানে তিনি বলেন, “বিভিন্ন জায়গায় আমাদের লোকজনকে মারধর করা হচ্ছে। পুলিশ দিয়ে আমাদের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করানো হচ্ছে। কিন্তু কর্মীদের উপর আক্রমণ হলে আমরা প্রতিরোধ করব। তৃণমূলের সবাই ঘরে ঢুকে গিয়েছে, আমরা দরজা খোলা রেখেছি। এখন সবাইকে আসতে হবে।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!