এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ডেঙ্গি প্রতিরোধে যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিতে চলেছে রাজ্য সরকার

ডেঙ্গি প্রতিরোধে যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিতে চলেছে রাজ্য সরকার

মশা ও অন্যান্য পতঙ্গ নিয়ন্ত্রণে নয়া পদক্ষেপ রাজ্য সরকার তথা স্বাস্থ্যভবনের।এবার মশা ও পতঙ্গ প্রতিরোধ করতে ও জনমানসে সচেতনতা বাড়াতে প্রকাশিত হতে চলেছে ক্যালেন্ডার। কলকাতা এবং রাজ্যের অন্যান্য শহরাঞ্চলের জন্য পৃথক ক্যালেন্ডার প্রকাশিত হতে চলেছে। এ বিষয় রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা জানান, ”সারা বছরের প্রস্তুতি রয়েছে ওই ক্যালেন্ডারে। কোন দিন কীভাবে কাজ হবে তা সকলে ওই ক্যালেন্ডার থেকে জানতে পারবেন। কোন মাসের কোন কোন তারিখ কর্মীরা বাড়ি ভিজিট করবেন, কোনদিন এলাকায় কাজ হবে, তা সবই নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। এভাবে ক্যালেন্ডার প্রকাশ করে ডেঙ্গি এবং পতঙ্গবাহিত রোগ প্রতিরোধের পরিকল্পনা দেশের মধ্যে প্রথম।” জানা গেছে জুন থেকে নভেম্বর পর্যন্ত রবিবার বাদে প্রতি দিনই কাজের জন্য ধার্য করা হয়েছে। প্রতিটি মাসে তিনটি রং দ্বারা কাজের দিন ভাগ করা আছে। বাড়ি বাড়ি সার্ভে করার দিন হলুদ রং, পতঙ্গ নিয়ন্ত্রণের দল অতি স্বক্রিয় ভাবে কাজ করার দিন নীল রং এবং পতঙ্গ নিয়ন্ত্রণকারী দল সাধারণভাবে কাজ করার দিন আকাশি রং দ্বারা চিহ্নিত করা হয়েছে। এদিন অজয় বাবু আরো বলেন, ”মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে রাজ্য জুড়ে সকলেই প্রতিরোধে সামিল হচ্ছেন। সেকাজ শুরু হয়েছে। ক্যালেন্ডার ধরে ধরে এলাকায় কুইক রেসপন্স টিম, পর্যবেক্ষণকারীরা পৌঁছবেন। রয়েছে রাজ্য এবং জেলা স্তরে মনিটরিং কমিটি।” বিষয়টির সমালোচনা করে এদিন ‘ওয়েস্ট বেঙ্গল সার্ভিস ফোরামে’র সভাপতি রেজাউল করিম জানান, ”এসব লোক দেখানো বিষয়। এসব না করে কাজ করে দেখাক। সামনে বর্ষা। বিপদ বাড়ার সময়। কোনটা ডেঙ্গি বলব কোনটা বলব না এসব সরকারি ব্যাখ্যায় না গিয়ে যে কোনও ক্ষেত্রে ডেঙ্গি সন্দেহ হলেই রোগীর চিকিত্সা শুরু করতে হবে।” অবশ্য এটিকে বাঁকা চোখেই দেখেন চেন চিকিৎসকের একাংশ। মশা দমনে ক্যালেন্ডার প্রকাশ নিয়ে সমালোচনার ঝড় চিকিৎসক মহলেও উঠেছে ।তাঁদের মতে সব লোক দেখানো বিষয়।কোনটা ডেঙ্গি বলব কোনটা বলব না এসব সরকারি ব্যাখ্যায় না গিয়ে যে কোনও ক্ষেত্রে ডেঙ্গি সন্দেহ হলেই রোগীর চিকিত্সা শুরু করতে হবে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!