এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ফের কি নতুন করে শুরু হবে অযোধ্যা মামলা?থমকে যাবে অযোধ্যায় মন্দির তৈরির কাজ -জল্পনা তুঙ্গে

ফের কি নতুন করে শুরু হবে অযোধ্যা মামলা?থমকে যাবে অযোধ্যায় মন্দির তৈরির কাজ -জল্পনা তুঙ্গে

 

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর সম্প্রতি দেশের শীর্ষ আদালত অযোধ্যা মামলার রায় দিয়েছে। যেখানে অযোধ্যা মন্দির করার ব্যাপারে সবুজ সংকেত দিয়ে দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ব্যাপারটিকেই মান্যতা দিতে দেখা গেছে সুপ্রিম কোর্টকে। তবে রায়ের আগে এবং পরে প্রায় বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষের মধ্যেই আশঙ্কা তৈরি হয়েছিল যে, এই রায়দানের পর হয়ত বা পরিস্থিতি ঘোরালো হয়ে উঠতে পারে।

কিন্তু সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ অযোধ্যায় বিতর্কিত জমি রামলালা বিরাজমানের হাতে তুলে দেওয়ায় প্রায় সকলেই সেই রায়কে স্বাগত জানিয়েছিল। কিন্তু সব ওষুধে চটজলদি রোগ সেরে ওঠে না। ঠিক তেমনই এই রায়ের পর সেইভাবে কোনো সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে বিরোধিতা না করা হলেও, যত দিন যাচ্ছে, ততই যেন প্রকাশ্যে আসতে শুরু করেছে বিরোধিতা।

সূত্রের খবর, এই অযোধ্যা মামলার অন্যতম অংশীদারি জামিয়ত উলামায়ে হিন্দ এবার স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিল যে, মসজিদের বদলে তাদের পক্ষে 5 একর জমি গ্রহণ করা কোনোমতেই সম্ভব নয়। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, অযোধ্যা মামলার রায়ে পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ যেমন বিতর্কিত জমি রামলালা বিরাজমানের হাতে তুলে দিয়েছে, ঠিক তেমনই মুসলিমদের অযোধ্যাতে কোনো একটি জায়গায় জমি দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আর এতদিন এই রায়ের ব্যাপারে মুসলমানদের পক্ষ থেকে কোনো আপত্তি তোলা না হলেও এবার এই ব্যাপারে তীব্র আপত্তি জানাল জামিয়ত উলামায়ে হিন্দ।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রাম, হোয়াটস্যাপ, ফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লিতে জামিয়তের কার্যকরী কমিটির একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। আর সেই বৈঠকের পরেই এই ব্যাপারে নিজেদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেয় তারা। এদিন এই প্রসঙ্গে জমিয়ত উলামায়ে হিন্দের সভাপতি আরশাদ মাদানী বলেন, “মসজিদের বদলে জমি অথবা টাকা কোনটাই আমাদের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়। এই বিষয়ে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি তৈরি করা হয়েছে। তারাই আইনি বিষয় কি করা যেতে পারে, সেদিকে লক্ষ্য রাখছেন।”

তাদের দাবি, পরিবর্ত জায়গায় 5 একর জমির যে সিদ্ধান্ত সুপ্রিম কোর্টের রায়ে হয়েছে, তা পুনর্বিবেচনা আর্জি কার্যকরী কমিটির বৈঠকে সর্বসম্মতভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামী দিনে দুটি বিষয় নিয়েই এগোনো হবে। পাশাপাশি এই ব্যাপারে রিভিউ পিটিশন দাখিল করার কথাও জানিয়ে দিয়েছে তারা। আর জামিয়াত উলামায়ে হিন্দের এই রিভিউ পিটিশন দাখিল করার মন্তব্যেই এখন ছড়িয়ে পড়েছে জল্পনা।

অনেকেই বলছেন, বহুবছর পর অযোধ্যা মামলার রায় পাওয়া গেছে। কিন্তু এবার এই জামিয়াত যদি সেই রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ পিটিশন দাখিল করেন, তাহলে কবে আবার রায় বেরোবে তা নিশ্চিত করে বলতে পারবে না কেউই। প্রায় প্রতিটি সম্প্রদায় তথা গোটা ভারতবাসীকে আবার এই রায়ের জন্য অপেক্ষা করতে হবে। ফলে গোটা ব্যাপারটি বিশবাঁও জলে চলে যাবে বলেই মনে করছেন একাংশ। পাশাপাশি পরবর্তীতে কি হবে, তা নিশ্চিত করে বলতে পারবে না কেউই। তাই জামিয়াত উলেমা হিন্দ যদি রিভিউ পিটিশন দাখিল করে, তাহলে গোটা পরিস্থিতি কোন পথে এগোয়, সেদিকেই নজর গোটা দেশবাসীর।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!