এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > অযোধ্যায় বিতর্কিত জমি সংক্রান্ত মামলা নিয়ে জোর সওয়াল মুখ্যমন্ত্রীর

অযোধ্যায় বিতর্কিত জমি সংক্রান্ত মামলা নিয়ে জোর সওয়াল মুখ্যমন্ত্রীর

দীর্ঘদিন ধরেই অযোধ্যা মামলার দ্রুত নিস্পত্তির আবেদন জানিয়েছেন কেন্দ্রের বিজেপি নেতারা। সেইমত গতকাল এই অযোধ্যা মামলায় রায় দিতে গিয়েও যেন শেষরক্ষা হল না কিছুতেই। সূত্রের খবর, গতকাল সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের ডিভিশন বেঞ্চের এই মামলার রায়দান করার কথা থাকলেও তা তিন সদস্যের ডিভিশন বেঞ্চে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। যার শুনানির কথা রয়েছে আগামী অক্টোবরের 29 তারিখ থেকে। তবে এদিন এই অযোধ্যা মামলায় এক ঐতিহাসিক রায় দেয় দেশের শীর্ষ আদালত।

সূত্রের খবর, প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের বেঞ্চ জানিয়ে দেয়, ভারতীয় সংস্কৃতিতে সব ধর্মেরই গুরুত্ব সমান। কোনোও একটি ধর্মকে বাড়তি গুরুত্ব দেওয়া হবে না। পাশাপাশি 1994 সালে ইসমাইল ফারুরি রায় খারিজ করে তিন সদস্যের বিচারপতির বেঞ্চ জানায়, নমাজ পড়ার জন্য মসজিদে যাওয়ার দরকার নেই একথা বলতে তারা যেমন রাজি নয়, ঠিক তেমনি নমাজ পড়ার কারনে সরকারি কাজে বরাদ্দ জমি অধিগ্রহন করা যাবে না এটাও ভুল।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এদিকে এদিন শীর্ষ আদালতের এহেন রায়কে স্বাগত জানিয়েছে আরএসএস। অন্যদিকে দ্রুত এই অযোধ্যা মামলার রায় নিস্পত্তির আবেদন জানিয়েছেন বিজেপি নেতা মন্ত্রীরা। এ প্রসঙ্গে উত্তরপ্রদেশের বিজেপি সরকারের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলেন, “অযোধ্যায় রামভূমি সংক্রান্ত মামলি খুবই গুরুত্বপূর্ন। দেশের মানুষ দ্রুত এই মামলার নিস্পত্তি চায়।” একই কথা শোনা গেছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী উমা ভারতীর গলায়। তিনি বলেন, “রামের জন্মভূমির কারনে এই অযোধ্যা হিন্দু ধর্মের কাছে পবিত্র স্থান।” তবে এই ধর্মস্থান মুসলিমদের জন্য নয় বলেও এদিন দাবে করেছেন উমা ভারতী। সব মিলিয়ে লোকসভা ভোটের আগে অযোধ্যা মামলার নিস্পত্তি চাইছেন বিজেপি নেতা মন্ত্রীরা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!