এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বর্ধমান > কলেজে ভর্তিতে “ভেরিফিকেশন” নিয়ে পথ দেখালো বর্ধমানের বিবেকানন্দ মহাবিদ্যালয়

কলেজে ভর্তিতে “ভেরিফিকেশন” নিয়ে পথ দেখালো বর্ধমানের বিবেকানন্দ মহাবিদ্যালয়

শ্রী শ্রী ঠাকুর রামকৃষ্ণ পরমহংসদেব একবার বলেছিলেন ” যত মত তত পথ”। আর ঠাকুরের এই কথা খুবই পছন্দ হয়েছিল তাঁরই শিষ্য স্বামী বিবেকানন্দের। সম্প্রতি রাজ্যে ভর্তিতে “ভেরিফিকেশন” নিয়ে সব কলেজে জটিলতা দেখা গেলেও ঠাকুরের সেই পথেই গিয়ে পথ দেখাতে চলেছে বর্ধমানের বিবেকানন্দ মহাবিদ্যালয়। জানা যায়, শুক্রবার দুপুরে বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য মহুয়া সরকারের নেতৃত্বে রেজিষ্ট্রার ও অধ্যাপক রমেন সর, কলেজ সমুহের পরিদর্শক সুজিত চৌধুরী সহ আরও এক বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র কোর্ট সদস্য স্বপন পান আচমকা হানা দেন বর্ধমান রাজ কলেজ ও মহারাজাধিরাজ উদয়চাঁদ মহিলা কলেজে। রেজিষ্ট্রার রমেন সর অভিযোগ করেন, শিক্ষাদপ্তর কলেজগুলিতে ভেরিফিকেশনে ছাত্রছাত্রীদের উপস্থিত হওয়ার দরকার নেই বলে বিজ্ঞপ্তি জারি করলেও এই দুই কলেজেই প্রচুর ছাত্রছাত্রী কলেজে উপস্থিত হয়ে তাঁদের শংসাপত্রের ভেরিফিকেশন করছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সূত্রের খবর, এই জিনিস দেখার পরে তাঁরা বর্ধমান রাজ কলেজের অধ্যক্ষ নিরঞ্জন মন্ডলকে তা বন্ধ করার নির্দেশ দিলে পাল্টা অধ্যক্ষ “কোনো বেআইনি কাজ করছেন না” বলে সেই প্রতিনিধি দলের কাছে ক্লাস শুরু হওয়ার দিন জানতে চান। তবে প্রথমে এই প্রতিনিধি দলের সাথে তর্ক জুড়লেও পরে বাধ্য হয়ে ভেরিফিকেশন বন্ধের নির্দেশের দিয়েছেন তিনি এমনটাই জানা গেছে। এদিকে শুধু বর্ধমানের রাজ কলেজই নয়, একই ঘটনা ঘটেছে মহারাজাধিরাজ উদয়চাঁদ মহিলা কলেজেও। যা দেখে রিতীমত ক্ষুদ্ধ হন বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য মহুয়া সরকার ও রেজিষ্ট্রার রমেন সর। এ প্রসঙ্গে রেজিষ্ট্রার জানিয়েছেন, “সরকারি নিয়ম লঙ্ঘন করায় তাঁরা এই বিষয়টি নিয়ে একটি রিপোর্ট তৈরি করছেন। তার ভিত্তিতেই প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।” এদিকে জেলায় বিভিন্ন কলেজে যখন এরূপ অনিয়ম চলছে ঠিক তখনই সেই বর্ধমানেরই বিবেকানন্দ কলেজে গিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধিরা দেখেন যে , আগে থেকেই এখানে “ভেরিফিকেশনে ছাত্রছাত্রীদের আসার প্রয়োজন নেই” এইরূপ একটি পোষ্টার কলেজ কতৃপক্ষ টাঙিয়ে দিয়েছে। স্বভাবতই যা দেখে খুশি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধিরা। তাঁরা বিষয়টির প্রশংসাও করেছেন বলে যান গেছে। খুশির হাওয়া এই কলেজের ছাত্রছাত্রীদের মধ্যেও। সব মিলিয়ে সঠিক পথে চলে ভেরিফিকেশন নিয়ে সব কলেজকে পথ দেখালো বর্ধমানের বিবেকানন্দ মহাবিদ্যালয়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!