এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > লোকসভার পরে বিজেপিতে যোগ দেওয়া প্রসঙ্গে মুখ খুললেন অধীর চৌধুরী

লোকসভার পরে বিজেপিতে যোগ দেওয়া প্রসঙ্গে মুখ খুললেন অধীর চৌধুরী

লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর থেকেই রাজ্যে দলবদলের হিড়িক শুরু হয়ে যায়। শাসক দল তৃণমূল এবং অন্যান্য বিরোধী দল থেকে অনেক নেতা বিধায়করা যোগ দিতে শুরু করে বিজেপিতে। এমনকি বিজেপির মুকুল ম্যাজিকে শাসক দল তৃণমূলের দখলে থাকা রাজ্যের অনেক পুরসভার কাউন্সিলররাও গেরুয়া শিবিরের পতাকা নিজেদের হাতে তুলে দেন।

আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে যখন উত্তপ্ত রাজ্য রাজনীতি, তখন রাজনীতির অন্দরমহলে ঘোরাফেরা করছে একটাই প্রশ্ন, কি করবেন বহরমপুরের কংগ্রেস সাংসদ তথা রাজ্য প্রদেশ কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী? বস্তুত, এবারে মুর্শিদাবাদের বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্র নিজেদের পক্ষে ধরে রাখা অনেকটাই চ্যালেঞ্জের ছিল অধীর বাবুর কাছে।

কেননা মুর্শিদাবাদের জেলা পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব নিয়ে তৃণমূলের শুভেন্দু অধিকারী এখানকার প্রতিটি কেন্দ্রেই ঘাসফুল ফোটানোর শপথ নিয়েছিলেন। তবে মুর্শিদাবাদ এবং জঙ্গিপুরে তৃণমূল তাদের আধিপত্য রয়েছে একথা প্রমাণ করে দিলেও অধীর রঞ্জন চৌধুরীর গড় হিসেবে পরিচিত বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্রে দাগ ফোটাতে পারেনি ঘাসফুল শিবির।

আর এহেন একটা পরিস্থিতিতে কংগ্রেসের অধীরবাবু বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে ফের সাংসদ হলেও যেভাবে রাজ্যে বিজেপির প্রবল উত্থান ঘটেছে এবারের লোকসভা নির্বাচনে, সেহেতু তিনি কি দলবদল করবেন, নাকি কংগ্রেসে থেকেই তার লড়াই চালিয়ে যাবেন! এদিন এই প্রসঙ্গে সমস্ত জল্পনাকে স্পষ্ট করে দিয়েছেন সেই অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

তার বিজেপিতে যোগ দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “ভোটের আগেও আমার বিজেপিতে যোগদান নিয়ে অনেক গল্প হয়েছে, এখনও হচ্ছে। আমি ওসবকে পাত্তা দিই না। তবে আমার এলাকার উন্নয়নের জন্য ব্রহ্মা-বিষ্ণু-মহেশ্বর আমি সবার কাছে যেতে পারি। নরেন্দ্র মোদী এবং বিজেপি মন্ত্রীদের কাছেও গিয়েছি, আগামীদিনেও যাব। তবে তা শুধুমাত্র সেই এলাকার উন্নয়ন ও সাধারণ মানুষের জন্য।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, রাজ্যে বিজেপির প্রবল উত্থান ঘটায় যেভাবে শাসক দল তৃণমূল থেকে একাধিক নেতা, বিধায়কেরা বিজেপিতে যোগদান করতে শুরু করেছেন, তাতে অনেকের মনেই জল্পনা তৈরি হয়েছিল যে বহরমপুরের লোকসভা কেন্দ্রের কংগ্রেস সাংসদ কথা প্রদেশ কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরীও নিজের রাজনৈতিক ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখে বিজেপিতে যোগদান করতে পারেন।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা না করে উন্নয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী এবং বিজেপির কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের সঙ্গে দেখা করবেন বলে জল্পনাকে আরও বাড়িয়ে দিলেন মুর্শিদাবাদের কংগ্রেসের এই রবিনহুড নেতা বলে মনে করছে পর্যবেক্ষকদের একাংশ। তবে মুর্শিদাবাদ জেলায় বিজেপির ভালো সংগঠনের জন্য অধীর রঞ্জন চৌধুরীকে বিজেপিতে যোগ দিতে স্বাগত জানিয়েছেন বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্রের পরাজিত বিজেপি প্রার্থী কৃষ্ণ জোয়ারদার।

সব মিলিয়ে তাকে নিয়ে নানা জল্পনা তৈরি হলেও শুধুমাত্র উন্নয়নের জন্যই তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বিজেপির অন্যান্য মন্ত্রীদের সঙ্গে দেখা করবেন বলে জানিয়ে দিলেন কংগ্রেসের অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

Top
error: Content is protected !!