এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বর্ধমান > মুখে “আচ্ছে দিনের” কথা বলে নয়, গরিব বাবা মায়ের রাতের ঘুম ফিরিয়ে এনে প্রকৃত “গরিব বন্ধু” মুখ্যমন্ত্রীই, দাবি মন্ত্রীর

মুখে “আচ্ছে দিনের” কথা বলে নয়, গরিব বাবা মায়ের রাতের ঘুম ফিরিয়ে এনে প্রকৃত “গরিব বন্ধু” মুখ্যমন্ত্রীই, দাবি মন্ত্রীর

ক্ষমতায় আসার পরেই জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত সাধারনের জন্য প্রতিটি উন্নয়ন প্রকল্পের ব্যবস্থা করেছে রাজ্যের বর্তমান মা মাটি মানুষের সরকার। কন্যাশ্রী থেকে রুপশ্রী, সবুজসাথী থেকে সমব্যথী – মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে রাজ্যের উন্নয়নমূলক প্রকল্পে এখন নতুন করে আলো দেখতে শুরু করেছেন অনেকেই।

আর এবারে মুখ্যমন্ত্রীর দেখানো পথেই হেঁটে শনিবার বর্ধমানের কঙ্কালেশ্বরী কালীমাতা গণ বিবাহ কমিটির উদ্যোগে পূর্ব বর্ধমানের পাশাপাশি অন্যান্য জেলার মোট 101 জোড়া পাত্র-পাত্রীর গণবিবাহের আয়োজন করা হয়। এদিন সকালে কন্যা পক্ষের লোকজন শোভাযাত্রা সহকারে মন্দির প্রাঙ্গনে যান। আর তারপরেই দুপুরে কল্পতরু মাঠ থেকে বর পক্ষের লোকজন মন্দির প্রাঙ্গনে পৌঁছন এবং এরপরেই উভয় পক্ষ মিলে খাওয়া দাওয়ার ব্যবস্থা করেন।

সূত্রের খবর এই বিবাহ অনুষ্ঠান উপলক্ষে এদিন সন্ধ্যায় কঙ্কালেশ্বরী ময়দানে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। যেখানে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস, স্বপন দেবনাথ, বর্ধমান-দুর্গাপুরের সাংসদ মমতাজ সংঘমিত্রা, বর্ধমান পূর্ব লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ সুনীল মণ্ডল, সভাধিপতি শম্পা ধারা, জেলাশাসক অনুরাগ শ্রীবাস্তব, পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায় শাসক দলের একাধিক বিধায়কেরা।

জানা যায়, এদিনের অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে অন্যান্য বিবাহর মতোই উদ্যোক্তাদের পক্ষ থেকে পাত্র-পাত্রীদেরকে নানা ধরনের উপহার দেওয়া হয়। আর সেই অনুষ্ঠান মঞ্চেই বক্তব্য রাখতে উঠে বিজেপিকে তীব্র ভাষায় কটাক্ষ করেন রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। এদিন তিনি বলেন, “যারা আচ্ছে দিনের কথা বলে তারা গরীব মানুষের মনের কথা ভাবেন না। গরিব মানুষের মনের কথা ভাবেন শুধুমাত্র মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাইতো তাঁর ভাবনায় অনুপ্রাণিত হয়ে আমাদের দলের নেতা খোকন দাস হিন্দু-মুসলিম উভয় সম্প্রদায়ের 101 জোড়া পাত্র-পাত্রীর বিয়ের আয়োজন করেছেন।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

রাজনীতি শুধু নয়, সামাজিকভাবেও যে মানুষের পাশে থাকতে হয় এদিন সেই কথা বলে ফের বিজেপির সাম্প্রদায়িক নীতির সমালোচনা করেন রাজ্যের পূর্তমন্ত্রী। অন্যদিকে গরীব মেয়েদের বিয়ে যাতে কোনো কারণে আটকে না যায় সেই জন্য সরকারের পক্ষ থেকে রূপশ্রী প্রকল্পও চালু করা হয়েছে বলে এদিন সকলকে জানান অরূপ বিশ্বাস। সব মিলিয়ে এবার গণবিবাহের অনুষ্ঠানেও বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন তৃনমূলের হেভিওয়েট মন্ত্রী।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!