এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ভোট পর্যন্ত আরও অনেকেই উন্নয়নের পক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে দাঁড়াবেন: পার্থ চ্যাটার্জি

ভোট পর্যন্ত আরও অনেকেই উন্নয়নের পক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে দাঁড়াবেন: পার্থ চ্যাটার্জি

“ভোট পর্যন্ত আরো অনেকেই উন্নয়নের পক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে দাঁড়াবেন।”এমনটাই বক্তব্যে এদিন জানালেন তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু কেন এমন উক্তি তাঁর? আসুন জেনে নেওয়া যাক্। ২০১৮ এর পঞ্চায়েত ভোটে শাসকদলের প্রধান মাথাব্যাথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে গোঁজপ্রার্থী। অতিরিক্ত মনোনয়ন জমা দেওয়াকে কিছুতেই ঠেকানো যায়নি।
প্রাথমিকভাবে প্রায় ১৪ হাজার গোঁজপ্রার্থী রয়েছে। শতকরার হিসাবে সংখ্যাটা কম-বেশি ৩৫ %।রাজ্য সরকার মনোনয়ন  প্রত্যাহারের জন্য সবরকম চেষ্টা করলেও সে চেষ্টা পুরোটা সফল হয়নি। সরকারি খতিয়ান অনুযায়ী, ৬৫% অতিরিক্ত গোজ বা নির্দল হিসাবে সরে গেছে। পঞ্চায়েত সমিতির হিসাব বলছে, ২,৬৬২ জন ছিল তৃণমূলের অতিরিক্ত প্রার্থী। তার ভিতর ২,৪০০ জনের মনোনয়ন বাতিল করা সম্ভব হয়েছে। তবে সমস্যায় পড়েছে একেবারে নীচের তলা। গ্রাম পঞ্চায়েতে ৪৮ হাজার পদের জন্য মনোনয়ন জমা পড়েছিলো ৫৮ হাজারের।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

তবে রাজনৈতিক সূত্রের খবর থেকে জানা যায়,নীচের তলার সমস্যার কথা দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় মেনে নিয়েছেন। তিনি বলেছেন গ্রাম পঞ্চায়েতে সকলেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চান। তবে রয়ে গেছে বেশ কিছু প্রার্থী। এঁনারা দলের হয়ে ভোট চাইবেন। কিন্তু প্রকাশ্যে মহাসচিব কখনোই গোঁজ বা নির্দল প্রার্থীর সমস্যা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেননি বলে জানা গেছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!