এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কোনো সরকারি পদে না থেকেও উন্নয়ন করে দেখিয়ে দিলেন প্রাক্তন

কোনো সরকারি পদে না থেকেও উন্নয়ন করে দেখিয়ে দিলেন প্রাক্তন

রাজনৈতিক গোষ্ঠীগুলোর এতো গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব, সন্ত্রাস, পারস্পরিক দোষারোপের জেরে যখন জেরবার রাজ্য তখনই উন্নয়নের এক দারুণ নজির সামনে রাখলেন  দক্ষিণ দিনাজপুরের হরিরামপুর ব্লকের প্রাক্তন বিধায়ক তথা তৃণমূল জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্র। ওই এলাকাবাসীদের স্বার্থে চালু করলেন এনবিএসটিসির একটি দূরপাল্লার বাস। কীভাবে তিনি এই প্রশংসনীয় কাজটি করলেন আসুন জেনে নেওয়া যাক।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

রাজনৈতিক সূত্রের খবর থেকে জানা গেছে, দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার সীমান্তে অবস্থিত হরিরামপুরের যোগাযোগ ব্যবস্থায় হালত দীর্ঘদিন ধরেই খারাপ বাম আমল থেকেই। তারপর তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় এলেও তাঁদের ওই এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থার তেমন মানোন্নয়ন হয়নি। বামেদের আমলে একবার কোলকাতা যাওয়ার জন্য বুনিয়াদপুর কলকাতা ভায়া হরিরামপুর বাস পরিষেবা চালু করা হলেও তা বন্ধ করে দেওয়া হয় কিছুদিনের ভিতরই। এতে সমস্যায় পড়েন এলাকাবাসী। বহুদিন ধরেই তাঁরা কোলকাতাগামী এবং কোচবিহার যাওয়ার দুরপাল্লার বাসের দাবী করতে থাকে। এই মরশুমে তাঁদের সেই ইচ্ছে পূরণ হল বিপ্লববাবুর সদর্থক প্রচেষ্টায়। এতে খুশি জোয়ারে ভাসেন এলাকাবাসী।  জানা গেছে,বাসটি রোজ সকাল ছটায় ছাড়া হবে। বাসটির প্রথমদিনের এক বৃদ্ধ যাত্রী চিত্ত সরকার প্রতিক্রিয়ায় জানান যে কয়েক দশক থেকেই তাঁদের দাবী ছিল দক্ষিণবঙ্গ এবং উওরবঙ্গের জন্য একটি সরকারি বাসেই। এটা চালু হওয়ায় তিনি তাঁর একরকম খুশিই প্রকাশ করলেন মিডিয়ার সামনে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বিপ্লব মিত্র ২০১১ সালে নির্বাচনো জয়ী হয়ে বিধায়ক হয়ে এই এলাকাতেই মার্কেট কমপ্লেক্স, বাসস্ট্যান্ড তৈরির কাজ শুরু করেছিলেন। কিন্তু পরে আবার তিনি নির্বাচনে হেরে যান। এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনী প্রচারে তিনি হরিরামপুরে গেলে এলাকাবাসী দূরপাল্লার সরকারি বাসের দাবী নিয়ে তাঁর কাছে ভীড় জমায়। তাঁদের সেই দাবী মিটাতেই তিনি চালু করলেন এনবিএসটিসি’র হরিরামপুর-মাথাভাঙ্গা ভায়া ইটাহাট বাস পরিষেবা। তৃণমূলের এই প্রাক্তন বিধায়কই প্রমাণ করলেন উন্নয়ন করতে কোনো পদ লাগে না। ইচ্ছে থাকলেই করা যায়। এ ব্যাপারে তিনি এদিন জানালেন যে,শুধু মাথাভাঙ্গা রুটেই নয়, কিছুদিনের ভিতর কোলকাতা রুটের বাসের ব্যাপারেও তিনি রাজ্য পরিবহন দপ্তরে যোগাযোগ করবেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!