এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > সত্যিকারের পরিবর্তন করতে হবে ত্রিপুরায়, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ পরিকল্পনা

সত্যিকারের পরিবর্তন করতে হবে ত্রিপুরায়, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ পরিকল্পনা

ত্রিপুরায় বিজেপি সরকারের এক মাস পূর্তি উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রী ও রাজ্যের বিধায়কদের মধ্যে রাজ্যের উন্নয়ন ও পরিকল্পনা বিষয়ে টেলিকনফারেন্সে আয়োজিত হলো । এদিনের এই যৌথ ফোনালাপ বিষয়ে  বিজেপি বিধায়ক সুশান্ত চৌধুরী বললেন সমাজের সর্বত্র কেন্দ্রীয় প্রকল্পগুলির সুফল যাতে পৌঁছোয় সে বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী রাজ্যের বিধায়কদের লক্ষ্য রাখতে বলেছেন। প্রধানমন্ত্রী এদিন প্রত্যেক মন্ত্রী ও দলীয় বিধায়কদের সাথে মোবাইলে কথা বলবেন এমন খবর ছিলো।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এরপর এই টেলিকনফারেন্স আয়োজিত হয়।  ফসল বিমা যোজনা, মুদ্রা যোজনা, জীবন জ্যোতি যোজনা, সুরক্ষা বিমা যোজনা, কৃষি সিচাই যোজনা, কুশল বিকাশ প্রভৃতি প্রকল্পের কথা প্রধানমন্ত্রী এদিন ত্রিপুরার মন্ত্রী ও বিধায়কদের উল্লেখ করেন বলে জানা গিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী সব বিধায়কদের কাছে উল্লিখিত সব প্রকল্পের সফল বাস্তাবায়নের জন্যে আবেদনও করেন। জানা গিয়েছে ধারাবাহিকভাবে প্রধানমন্ত্রী দেশের সাংসদ এবং অন্য বিধায়কদের সঙ্গেও কথা বলবেন। ত্রিপুরার বিধায়কদের সাথে প্রধানমন্ত্রীর পরবর্তী বৈঠকের দিন আগামী ২৬শে এপ্রিল স্থির হয়েছে। জানা গেছে এখন থেকে  মোবাইলে পিএম অ্যাপ ডাউনলোড করলেই তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা যাবে । এই প্রসঙ্গে ত্রিপুরার চিফ হুইপ কল্যাণী রায় বললেন এলাকা নিয়ে সাংসদ এবং বিধায়করা কোনও অসুবিধায় পড়লে প্রধানমন্ত্রী তাঁর সাথে যোগাযোগ করতে নির্দেশ দিয়েছেন। এছাড়াও বিজেপি বিধায়ক সুশান্ত চৌধুরী বললেন, নির্বাচিত হওয়ার পর মুখ্যমন্ত্রী তাঁদের সপ্তাহে অন্তত দুবার নিজেদের এলাকায় যোগাযোগের জন্য পরামর্শ দিয়েছেন । মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে কেন্দ্রীয় প্রকল্পগুলি সম্পর্কে তাঁরা জেনেছেন। নিজেদের এলাকায় সেই প্রকল্পের কতটা কাজ হল, তারও খোঁজখবর রাখতে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এমন কী মানুষের কথা শোনার ও পরামর্শ দিয়েছেন ।  ত্রিপুরার উপ মুখ্যমন্ত্রী জিষ্ণু দেববর্মা টেলিকনফারেন্সের মারফত প্রধানমন্ত্রীর সাথে রাজ্যের বিধায়কদের আলাপ আলোচনার মাধ্যমে পরামর্শ গ্রহণের বিষয়টিকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে এদিন দাবি করলেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!