এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ত্রিপুরায় হেরেও সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে বড়সড় উত্থানের সম্ভবনা মানিক সরকারের

ত্রিপুরায় হেরেও সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে বড়সড় উত্থানের সম্ভবনা মানিক সরকারের

ত্রিপুরায় হেরেও সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে বড়সড় উত্থানের সম্ভবনা মানিক সরকারের। ত্রিপুরায় মানিক সরকারের ২৫ বছরের কতৃত্ব হারিয়ে গেলেও, দক্ষিণে তিনিই কিন্তু সর্বেসর্বা। জানা গেছে, সম্প্রতি বাঘলিঙ্গমপল্লির একটি মঞ্চে সিপিএমের ২২ তম পার্ট কংগ্রেস শুরু হবে এবং মঞ্চটির নামকরনের জন্য সুকোমল সেনের সঙ্গে ত্রিপুরার প্রয়াত নেতা খগেন দাশকে বেছে নেওয়া হয়েছে। এদিন ঊধ্বধনী পর্বে সভাপতিত্ব করবেন ত্রিপুরার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার। এর আগে হায়দরাবাদের এম বাসবপুন্নাইয়া ভবনে বিদায়ী কেন্দ্রীয় কমিটির শেষ বৈঠকেও সভাপতি ছিলেন মানিকবাবু।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এই মঞ্চে কাল উদ্বোধনী বক্তৃতা দিতে সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরিকে দেখা গেলেও শেষ বক্তা ছিলেন কিন্তু মানিকবাবু । এদিন সর্ব প্রথম রক্তপতাকা উত্তোলন করবেন তেলেঙ্গানা কৃষক আন্দোলনের প্রধান প্রবীণা মোল্লা স্বরাজম। অন্যদিকে পার্টি কংগ্রেসে ইয়েচুরির পরিবর্তে মানিকবাবুকেই সাধারণ সম্পাদক করার পরিকল্পনা রয়েছে প্রকাশ কারাট শিবিরের। পলিটব্যুরোর এক সদস্যের কথায়,”এখন আমাদের মূল আহ্বান, বিজেপিকে পরাস্ত করো। ত্রিপুরায় সেই বিজেপির বিরুদ্ধেই লড়়াই হয়েছে এবং হচ্ছে। তাই সেই অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নেওয়ার চেষ্টা করছি।”। ইয়েচুরিও হায়দারাবাদে পৌঁছে সেই লক্ষ্যের কথাই বলেন। এদিকে ইতিহাসবিদ ইরফান হাবিব সম্প্রতি বলেছিলেন বিজেপিকে ঠেকানোর জন্য ধর্ম নিরপেক্ষ গণতান্ত্রিক ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। কেরালার প্রবীণ নেতা অচ্যূতানন্দনও হাবিবের সুরেই সুর মিলিয়ে বলেছেন, পার্টি কংগ্রেসকে ধর্ম নিরপেক্ষ, গণতান্ত্রিক জোট গড়ে তুলতে হবে। অন্যদিকে বাংলার প্রাক্তন সংসদ অনিল বসু প্রকাশ কারাটের তত্বকে পরাস্ত করার আহ্বান জানিয়েছেন সব প্রতিনিধিদের। হায়দারাবাদ ও তেলেঙ্গানায় অবশ্য রাজ্য কমিটির আয়োজন দেখে বলা যাবে না যে সিপিএম একেবারে উঠে গেছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!