এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > তৃণমূলের রাস্তায় দাঁড়ানো ‘উন্নয়ন’ এবার শুভেন্দু-গড়ে দেখতে পেলেন দলেরই যুবনেতা

তৃণমূলের রাস্তায় দাঁড়ানো ‘উন্নয়ন’ এবার শুভেন্দু-গড়ে দেখতে পেলেন দলেরই যুবনেতা

রাজ্যে আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনের মনোনয়নপত্রপেশ করার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হওয়ার অল্প দিনেই তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল বিরোধীদের উদ্দেশ্যে এক বার্তা দিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন ,”কোনও বাধা না মেনে যে সব প্রার্থী তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়তে চাইবেন, তাঁরা যখনই মনোনয়ন দিতে বেরোবেন, দেখবেন রাস্তায় উন্নয়ন দাঁড়িয়ে রয়েছে।” প্রসঙ্গত উল্লেখ্য নজিরবিহীন ভাবেই বীরভূম জেলার  জেলা পরিষদ বিরোধীশূন্য হয়েছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

কিন্তু এইসবের পরেও অল্প কদিন আগেই যুব তৃণমূলের হলদিয়া ব্লক সভাপতি অনুপকুমার পাঁজা ফেসবুকে পোস্ট করে বললেন, “রাস্তায় উন্নয়ন দাঁড়িয়ে, তাই অন্যরা কেউ মনোনয়ন জমা দিতেই পারেনি’।” ২০১৪ সাল থেকে হলদিয়া ব্লকের যুব তৃণমূল সভাপতির সোস্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে এহেন মন্তব্যে শাসক দলের মধ্যে অযাচিত উত্তেজনা শুরু হয়েছে। অনুপবাবুকে এই প্রসঙ্গে কার্যত অভিযোগের সুরেই  জানান, ”হলদিয়া ব্লক অফিসে মনোনয়ন দিতে গিয়ে দলেরই একাংশ কর্মী হেনস্থা হয়েছেন। থানায় ডেকে তাঁদের হয়রান করেছে পুলিশ। দলের কিছু প্রভাবশালী নেতার মদতেই এ সব হচ্ছে।” এদিন তিনি বললেন, ”৬ এপ্রিল হলদিয়ার ভবানীপুর থানায় আমাকে ও সহকর্মী যশোরাজ ব্রহ্মচারীকে দীর্ঘক্ষণ আটক করে রাখা হয়েছিল।” এদিকে অনুপবাবুর করা মন্তব্য শোনার পরে হলদিয়ার সিপিএম বিধায়ক তাপসী মণ্ডল নিজের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বললেন, ”তৃণমূল যে কী সন্ত্রাস চালাচ্ছে তা ওদের দলের লোকের কথাতেই স্পষ্ট। তবে স্বার্থে ঘা লেগেছে বলেই ওই যুবনেতা এমন বলছেন। এ সব প্রকৃত প্রতিবাদ নয়।” তৃণমূলের জেলা সভাপতি শিশির অধিকারী বললেন, ”অপরিণত কেউ কিছু বলে থাকতে পারে। আমরা সে সবে আমল দিচ্ছি না।”

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!