এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ঘুরে আসছে সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের ছায়া, বোলপুরে তীব্র অস্বস্তিতে শাসকদল

ঘুরে আসছে সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের ছায়া, বোলপুরে তীব্র অস্বস্তিতে শাসকদল

বাম জামানায় বীরভূমের বোলপুর শিবপুরে ভারী শিল্প স্থাপনের জন্য জমি অধিগ্রহণ করা হয়। কিন্তু তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পর সেই জমিতেই বিশ্ব বাংলা বিশ্ববিদ্যালয় গঠনের নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। শিল্পের জন্য অধিগ্রহণ করা জমিতে বিশ্ববিদ্যালয় গড়তে না দেওয়ার দাবিতে আন্দোলনে নামেন স্থানীয় গ্রামবাসীরা। বিশ্ববিদ্যালয় গঠনের জন্য ইঁট গাঁথা হলেই তা গুড়িয়ে ভেঙে দিচ্ছে গ্রামবাসীরা। আর তাই মুখ্যমন্ত্রী সম্প্রতি নির্দেশ দেন দ্রুত বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজ শেষ করার। এদিন গ্রামবাসীদের আন্দোলনে যোগ দিতে কলকাতা আগত থেকে এপিডিআরের এক প্রতিনিধি দল বোলপুরে ঢোকার চেষ্টা করলে বোলপুর ও শান্তিনিকেতনের পুলিশ তাঁদের বাঁধা দেয় বলে জানা গেছে। এদিন এপিডিআরের রাজ্য নেতা শৈলেন মিশ্র জানান, ”প্রাক্তন বাম সরকারকেও ছাপিয়ে গিয়েছে মমতার সরকার।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

পুলিশকে দিয়ে গণতন্ত্রের গলা টেপা হচ্ছে।” এদিন বীরভূমের পুলিশ সুপার সুধীর কুমার জানান, ”বহিরাগতদের সংশ্লিষ্ট এলাকায় ঢুকতে দেওয়া হবে না। ওই এলাকায় কিছু সমস্যা রয়েছে। বাইরে থেকে অনেকে সেখানে এসে উত্তেজনা ছড়ানোর চেষ্টা করছে। আমরা তো সেটা মেনে নিতে পারি না। তাই পুলিশ পুলিশের কাজ করেছে।” এদিন ভূমি ও ভূমি সংস্কার দফতরের এক আধিকারিকের কথায়, ”সিঙ্গুর প্রশ্নে শীর্ষ আদালত যেভাবে জোর করে জমি অধিগ্রহণ করা যাবে না বলে রায় দিয়েছে তাতে জোর করে জমি অধিগ্রহণ করা তো যাবেই না, উলটে করতে গেলে হিতে বিপরীত হবে।” বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় এদিন বিষয়টির সমালোচনা করে বলেন, ”এখন শিল্প শিল্প করে চেঁচালে হবে। জোর করে জমি না দেওয়ার পথ তো মুখ্যমন্ত্রীই দেখিয়েছেন। ‘তৃণমূলের পায়ের তলার মাটি সরে গেছে। মানুষ ওদের পাশে নেই। তাই গায়ের জোর ফলাচ্ছে।” তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় এদিন দৃঢ় ভাবে বলেন, ”আমরা তো জোর করে জমি অধিগ্রহণ করছি না। ওই জমি তো বাম আমলেই অধিগ্রহণ করা হয়েছে। পরিকল্পিতভাবে কিছু লোক বাধা দেওয়ার চেষ্টা করছে। তারা চক্রান্ত করে রাজ্যে অশান্তি পাকাতে চাইছে।”আর তাই রাজনৈতিকমহলের ধারণা ঘুরে আসছে সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের ছায়া।যা শাসকদলকে একটু হলেও অস্বস্তিতে পড়েছে শাসকদল। কেননা সিঙ্গুর আর নন্দীগ্রামেও জমি আন্দোলন দিয়েই শুরু হয়েছিল অশান্তি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!