এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > রাহুল গান্ধীকে প্রধানমন্ত্রী করতে কর্ণাটক বিধানসভা থেকেই আসরে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী

রাহুল গান্ধীকে প্রধানমন্ত্রী করতে কর্ণাটক বিধানসভা থেকেই আসরে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী

এখন আর পরোক্ষে থেকে নয় অবশেষে পরিস্থিতিই প্রকাশ্যে আনলেন কংগ্রেসের আরেক উত্তরাধীকারী প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে। আসন্ন কর্ণাটক বিধানসভা নির্বাচনে দলীয় প্রচারে সামিল হবেন তিনি। একমাত্র লক্ষ্য গেরুয়া শিবিরকে পরাস্ত করা। কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া ইতিমধ্যেই চিকমাগালুরে প্রিয়াঙ্কার প্রচারের সম্ভাব্য দিনক্ষণ স্থির করে ফেলেছেন। এমনকি সেই পরিকল্পনা সূচী প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর অনুমোদনের জন্যে দিল্লী পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া এবং প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর মধ্যে দূতের ভূমিকা পালন করছেন কংগ্রেস নেতা রণদীপ সিং সুরজেওয়া। স্থির হয়েছে বিধানসভা নির্বাচন সমাপ্ত না হওয়া অবধি রণদীপ সিং সুরজেওয়ালা কর্ণাটকেই থাকবেন। এদিকে কর্ণাটকে দলের হয়ে ১২টি জনসভা করার কথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। কিন্তু এপ্রিল মাসের শেষ সপ্তাহেই চীন সফরসূচী স্থির হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী কর্ণাটক নির্বাচনের প্রচারে কতটা সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করতে পারবেন সে বিষয়ে এখন অনিশ্চয়তা দেখা যাচ্ছে। দলীয় পরিকল্পনা অনুয়ারী চিকমাগালুর থেকেই কংগ্রেস প্রিয়াঙ্কাকে রাজনৈতিক ময়দানে অংশগ্রহন করানোর বিষয়ে মনোস্থ করেছে। উল্লেখ্য চিকমাগালুর হলো কংগ্রেসের জন্যে সেই ঐতিহাসিক এবং স্মৃতিমেদুর স্থান যেখান থেকে ক্ষমতায় ফেরার পথ সুগম করেছিলেন প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী। সিদ্দারামাইয়া চাইছেন চিকমাগালু থেকে প্রিয়াঙ্কাকে দলীয় প্রচারে সামিল করে রাজ্যের মানুষের কংগ্রেস প্রীতির আবেগকে আরেকটু বাড়িয়ে দিতে। স্থির হয়েছে চলতি মাসের শেষ দু’দিন প্রিয়াঙ্কা  চিকমাগালুর জেলায় কাটাবেন। সেখানে তিনি দলীয় প্রচারকার্যের জন্যে কোনো জনসভা না করে অংশ গ্রহন করবেন রোড শো, যাতে তিনি চিকমাগালুর জেলার অধিকাংশ মানুষের কাছে পৌঁছতে পারেন। রাজ্যের কংগ্রেস নেতৃত্ব গান্ধীর পরিবারের সদস্যদের দলীয় প্রচারকার্যে অংশ গ্রহণের বিষয়ে সতর্ক দৃষ্টী রাখছেন যাতে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী এবং রাহুল গান্ধীর সফর সূচী কোনভাবেই এক না হয়ে যায়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!