এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ‘মারের পালটা মার’, পঞ্চায়েতের অশান্তির আবহে দলীয় কর্মীদের নিদান দিলীপ ঘোষের

‘মারের পালটা মার’, পঞ্চায়েতের অশান্তির আবহে দলীয় কর্মীদের নিদান দিলীপ ঘোষের

পঞ্চায়েত নির্বাচনের নির্ঘন্ট ঘোষণার পরই মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া নিয়ে বারবার অশান্ত হচ্ছে রাজ্য। অশান্ত হয়েছে বীরভূম, বাঁকুড়া। এদিন বিজেপির জেলা সম্পাদক কালাসোনা মন্ডল জেলাশাসকের ঘরে স্মারকলিপি জমা দিতে যাওয়ার সময় কিছু তৃণমূল কর্মী ছুরি নিয়ে তাঁর ওপর হামলা চালায় বলে জানা গেছে। এরপরই মুখ খোলেন রাজ্যের বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দেন, ‘মার শুরু হলে বসে থাকবে না বিজেপি। মার বলে দিতে হয় না, দিতে হয়। বিজেপিও পালটা মার দেবে। মনোনয়ন দাখিল করা নিয়ে ঝামেলা হবে, তা জানা কথা।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

তাও লোকজন নিয়ে লড়াই করেই মনোনয়ন জমা দেওয়া হবে। জমা দেওয়ার পর তা তুলে নেওয়ারও চাপ আসবে। কিন্তু সব পরিস্থিতিতেই রুখে দাঁড়াতে প্রস্তুত বিজেপি। প্রতিবারই পঞ্চায়েতে ৭০ থেকে ১০০ জন শ্মশানে যান, এবারও তার ব্যতিক্রম হবে না।’ মনোয়ন জমা দেওয়া নিয়ে অশান্তির জেরে তিনি রাজভবনের দ্বরস্থও হন। তাঁর কথায়,” রাজ্যের পরিস্থিতি ভালই বুঝেছেন রাজ্যপাল। তিনি মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্রসচিবকে ডেকে এ ব্যাপারে কথা বলবেন।” এদিন তিনি দাবি সহকারে বলেন, ”এভাবে কোনও রাজ্য চলে না। এখানে গণতন্ত্র, সংবিধান বলে কিছু নেই। শাসকদল ঠিকই করে নিয়েছে কাউকে নমিনেশন করতে দেবে না। তবু বিজেপি লড়াই চালিয়ে যাবে।” জানা গেছে মনোয়ন জমা দিতে আর কোনো অসুবিধা হলে কলকাতায় তা জমা পরিকল্পনা করা হয়েছে এবং দরকার হলে এসডিও অফিসে এমন ব্যবস্থার আবেদনও করা হবে বিজেপি তরফ থেকে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!