এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পঞ্চায়েতের পর তৃণমূলের অবস্থান নিয়ে বিস্ফোরক দাবি মুকুল রায়ের

পঞ্চায়েতের পর তৃণমূলের অবস্থান নিয়ে বিস্ফোরক দাবি মুকুল রায়ের

রবিবার নদীয়ার কৃষ্ণনগরে আয়োজিত হলো বিজেপির আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনের জন্যে দলীয় জনসভা। বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজ্য নেতৃত্বের পক্ষ থেকে মুকুল রায় সহ আরোও অনেকে। প্রকাশ্য জনসভায় রাজ্যের শাসক দল সহ মুখ্যমন্ত্রীর ভূমিকা নিয়ে কটাক্ষ করতে বিরত হলেন না তৃণমূলের কংগ্রেস দলের প্রাক্তন এবং একদা শীর্ষনেতা মুকুল রায়। তাঁর ভাষণে মুকুল বাবু বললেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষমতায় আসার পর তাঁর প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেননি।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

বাংলার গণতন্ত্র আজ ভুলুণ্ঠিত। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্বাক থেকেছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন বদলা নয় বদল চাই। বদল হয়েছিল রাজ্যে। কিন্তু লাভ কী হল! মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল পথভ্রষ্ট হয়ে তো ফিরে গেল সেই বদলার রাজনীতিতে। তিনি বলেছিলেন, গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনবেন। কিন্তু কোথায় কী- বাংলায় যেটুকু গণতন্ত্র ছিল, সেটুকুও শেষ হয়ে যেতে বসেছে।'” মুখ্যমন্ত্রী সহ অন্যান্য মন্ত্রীদের সমালোচনা করে এবং একইসাথে দলীয় কর্মীদের কাছে কৃতজ্ঞতা স্বীকার করে এদিন মুকুল বাবু বললেন ,”আমি কৃতজ্ঞ যে, আমার দলের কর্মীরা বুথ আগলে লড়াই করছেন। তৃণমূল এক ইঞ্চি জমিও ছাড়ছে না।” এদিন রাজ্যের বামকর্মীদের কাছে তৃণমূল বিরোধী লড়াইয়ে অংশ গ্রহণের আহ্বান জানালেন তিনি। এই আহ্বাণের সপক্ষে তিনি যুক্তি হিসেবে তিনি বললেন ,” তৃণমূলের মতো শক্তিশালী প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে অধিকারের লড়াইয়ে সবাইকে এক হতে হবে।” রাজ্যে শাসক হিসেবে বিজেপির প্রয়োজনীতা সম্পর্কে মুকুল বাবু আরোও বললেন ,”বাংলায় এখন তৃণমূলকে লড়াই দিতে পারে একমাত্র বিজেপি।” রাজ্যের উচ্চ পদস্থ পুলিশ কর্তাদের সমালোচনা করে ব্যাজ খুলে ফেলার পরামর্শ দিয়ে মুকুল বাবু বললেন,”‘সত্যমেব জয়তে লেখা ব্যাজ পরার যোগ্যতা নেই রাজ্যের আইপিএস অফিসারদের।”

Top
error: Content is protected !!