এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > দিন ঘোষণা না হলেও, এই মাসেই অভিনব ভাবে পঞ্চায়েতের প্রচারে রাজ্য সরকার

দিন ঘোষণা না হলেও, এই মাসেই অভিনব ভাবে পঞ্চায়েতের প্রচারে রাজ্য সরকার

পাখির চোখ এখন আসন্ন ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত ভোট। আর সেই উদ্দেশ্যেই রাজ্যের শাসকদল জেলায় জেলায় প্রদর্শিত নতুন কর্মসূচি। জেলার যে সমস্ত এলাকায় জনসমাগম বেশি সেখানে ‘জায়েন্ট স্ক্রিন’- এর মাধ্যমে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন প্রকল্প দেখানো হবে। ব্যবস্থা করা হয়েছে আলাদা ব্রান্ডিংয়ের যার মাধ্যমে বিকেল ৩ টে থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত এই প্রকল্পের প্রচার সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে। প্রচারের জন্য যোগাযোগ করা হয়েছে কেবল চ্যানেলগুলোর সাথেও। জানা গেছে মোট ৩ দিন ধরে এই কর্মসূচি চলবে যার মূল স্লোগান হবে ,’মানুষের সঙ্গে মা-মাটি-মানুষের সরকার’। নবান্ন সূত্রের খবর প্রথমে মোট ১৫ টি জেলায় ও পরে আরো ৮ টি জেলায় এই কর্মসূচি পালিত হবে। জানা গেছে কলকাতার প্রায় ১৫০ জন প্রতিষ্ঠিত শিল্পী এই প্রকল্পে সামিল হয়ে বিভিন্ন জেলায় অনুষ্ঠান করবেন। এদিন এক প্রশাসন কর্তা বলেন, ”প্রধানত ঘেরা এলাকায় প্রদর্শনী এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হওয়ার কথা। শব্দবিধি মানার ব্যাপারেও সতর্ক থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে জেলাগুলিকে।” সাফল্যের প্রচার মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছানোর জন্য প্রতি মহকুমায় ব্যবস্থা করা হয়েছে ট্যাবলোর। গোটা রাজ্যে মোট ৬ টি ট্যাবলো ঘুরবে। সাফল্যের প্রচার অডিও ভিজ্যুয়াল উপস্থাপনার মাধ্যমে দেখানো হবে। মানুষকে আকর্ষিত করার জন্য ট্যাবলয় প্রদর্শিত হবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, এমনটাই সূত্র অনুযায়ী জানা গেছে। প্রতিটি জেলায় ব্যবস্থা করা হয়েছে ‘ইনফর্মেশন কিয়স্ক’- এর। প্রকল্প সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য সাধারণ মানুষ এর মাধ্যমে পাবে। এই বিষয় এক আধিকারিকের কথায়, ”কেউ চাইলে প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করার কোনও সমস্যার কথাও জানাতে পারবেন। তাঁকে ঠিক পথ দেখানোর চেষ্টা করা হবে সঙ্গে সঙ্গেই।” এদিন এক প্রশাসনিক কর্তা জানান, ”এই প্রচারে সাফল্য মিললে হোয়াটসঅ্যাপে ‘মানুষের সঙ্গে মা-মাটি-মানুষের সরকার’ স্লোগান পাঠানো হবে।” পঞ্চায়েত ভোটে জয়ের লক্ষেই মুখ্যমন্ত্রী এই কর্মসূচির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top