এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পঞ্চায়েতে সন্ত্রাসের পরিপ্রেক্ষিতে আদালতে গিয়ে মুখ পুড়ল বিরোধীদের, স্বস্তি রাজ্য সরকারের

পঞ্চায়েতে সন্ত্রাসের পরিপ্রেক্ষিতে আদালতে গিয়ে মুখ পুড়ল বিরোধীদের, স্বস্তি রাজ্য সরকারের

রাজ্যে বহু প্রতীক্ষিত পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিন হাইকোর্টের নির্দেশ সত্ত্বেও স্বচ্ছ, অবাধ এবং শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হয়নি জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করলো বাম শরিক দল সিপিএম এবং পিডিএস। নির্বাচনের দিন সন্ত্রাস হিংসা প্রাণহানির মতো ঘটনার সাক্ষী থেকেছে রাজ্যবাসী । নির্বাচন কমিশন, এবং ডিজি, এডিজি কোর্টের নির্দেশ অনুয়ারী পর্যাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে অসমর্থ হয়েছে তাই তাঁদের বিরুদ্ধে  আদালত অবমাননার মামলার আর্জি জানালেন এই দুই দলের শীর্ষ নেতারা। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে দশটা নাগাদ সিপিএম ও পিডিএস-এর আইনজীবী শামিম আহমেদ এবং সব্যসাচী চট্টোপাধ্যায় প্রধান বিচারপতি জ্যোতির্ময় ভট্টাচার্য এবং বিচারপতি অরিজিত্‍ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চে দৃষ্টি আকর্ষণ করে বললেন, “গত বৃহস্পতিবার এই কোর্ট(প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ) রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দিয়েছিল ভোট স্বচ্ছ, অবাধ এবং শান্তিপূর্ণ করার জন্য।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

কিন্তু রাজ্যজুড়ে গতকালের চিত্রটা ছিল এর পুরো উল্টো। কমিশন এবং পুলিশ হাইকোর্টের অর্ডার লঙ্ঘন করেছে। তাই তাদের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা হওয়া উচিত।” আইনজীবিদের এই বক্তব্য শোনার পরে বিচারপতি গন তাঁদের আলাদা করে মামলা করার বৈধতা দেন। এবং জানানো হয় আদালত যদি মনে করে কমিশন এবং পুলিশ আদালত অবমাননা করেছে, তখন সেটা পরবর্তী ক্ষেত্রে ভেবে দেখা যাবে। অবশ্য এদিন ডিভিশন বেঞ্চ মামলাকারীদের উদ্দেশ্যে পরিষ্কার ভাষায় জানিয়ে দেয় এই মামলার শুনানি যেহেতু খুব একটা জরুরী নয় তাই আদালতের গ্রীষ্মবকাশের পরে পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য হয়েছে। প্রসঙ্গত, সোমবারও পঞ্চায়েত নির্বাচন চলাকালীন প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে আইনজীবী সুপ্রদীপ রায় মোবাইল ফোনে ভোটের সন্ত্রাসের লাইভ সম্প্রচার দেখান। সেদিন আদালত তাঁকে তিনি চাইলে মামলা করতে পারেন এই মর্মে পরামর্শ দিয়েছেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!