এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পঞ্চায়েত নির্বাচনে ফুল ফোটাতে রাম নামেই ভরসা বিজেপি-তৃণমূল দুদলেরই

পঞ্চায়েত নির্বাচনে ফুল ফোটাতে রাম নামেই ভরসা বিজেপি-তৃণমূল দুদলেরই

সম্প্রতি রামনবমী পালনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজ্য জুড়ে নানা বিচ্ছিন্ন সন্ত্রাসের ঘটনার সাক্ষী থাকলো রাজ্যবাসী। এখন সেই রামচন্দ্র নির্বাচনী প্রচারে শরিক হলো রাজনৈতিক দলগুলির সৌজন্যে। পুরুলিয়া জেলায় নির্বাচনী প্রচারে সামিল হয়েছে শ্রী রামচন্দ্র এবং তাঁর ভক্ত হনুমান। ঐ জেলায় বিজেপি শিবির এবং রাজ্যের শাসকদল উভয়েরই নির্বাচন প্রচারের জন্যে দেওয়াল লিখনে শ্রী রামচন্দ্র এবং হনুমানের উজ্জ্বল উপস্থিতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। একদিকে যেমন পৌরাণিক কাহিনী সম্বলিত শ্রীরামচন্দ্র এবং হনুমানের নানা  ছবি এঁকে সাথে জয় শ্রীরাম লিখে নির্বাচনী দেওয়াল লিখন জারি রেখেছে বিজেপি। অন্যদিকে তৃণমূল কংগ্রেস তাদের দেওয়াল লিখনে বিজেপির সাথে পাল্লা দিয়ে শ্রীরামচন্দ্রের বন্দনা বজায় রেখেছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

তারা দেওয়াল লিখনে ‘রাম রাম হরে হরে, তৃণমূল ঘরে ঘরে’ স্লোগান ব্যবহারের মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচারকার্য চালিয়ে যাচ্ছেন। নির্বাচনী প্রচারের জন্যে দেওয়াল লিখনে পৌরাণিক কাহিনীর চিত্রায়ন প্রসঙ্গে বিজেপির জেলা সভাপতি বিদ্যাসাগর চক্রবর্তী বললেন, “আমাদের কাছে রামচন্দ্র আদর্শ পুরুষ। আমাদের বিশ্বাস রামচন্দ্রের মত রাজ্যপাট হলে কোথাও কোনও সমস্যা থাকবে না। তাছাড়া জয় শ্রীরাম আমাদের দলের মন্ত্র। তাই ভোটের দেওয়াল লিখনে আমরা সেই কথা লিখছি। এটা কোনও বৈতরণী পার হতে নয়। তবে এই জয় শ্রীরাম বলার জন্যই আমাদের জেলায় পুলিশের মামলা খেতে হচ্ছে। জেলে যেতে হচ্ছে। যত এই ধরনের ঘটনা ঘটবে, আমরা ততই জয় শ্রীরাম স্লোগান দেব।” উল্লেখ্য জেলার  জয়পুরে ‘বেআইনি’ ভাবে রামনবমীর শোভাযাত্রা করায় পুলিশের মামলার ভিত্তিতে আদালত ২৯ জনকে সমন পাঠায়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তাল ওটা পুরুলিয়া জেলা। এমনকি নজির বিহীন ভাবে লক্ষ্য করা যাচ্ছে শুধু দেওয়াল লিখনেই শ্রীরামচন্দ্র নাম থেমে নেই দলীয় সংঘর্ষের পরে ধৃত বিজেপি কর্মীরাও আদালতে এজলাসে ঢোকার সময় জয় শ্রীরাম বলছেন। এই বিষয়ে পুরুলিয়া জেলা তৃণমূলের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট তথা জেলাপরিষদের ভোট প্রার্থী সুজয় বন্দ্যেপাধ্যায় বললেন, “রাজনীতিতে ধর্মকে ব্যবহার করে বিজেপি ভাগাভাগি করতে চাইছে। সেটা সাধারণ মানুষ বুঝছেন। রাম-হনুমান কারও একার নয়। তিনি সকলের। তাই আমরাও হনুমান ও রামের পুজো করি। বন্দনা করি। রাম আমাদের দেবতা।”

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!