এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পঞ্চায়েতের আগে বড় ধাক্কা বামশিবিরে, খুনের মামলায় দোষী সাব্যস্ত ১৮ নেতা-কর্মী

পঞ্চায়েতের আগে বড় ধাক্কা বামশিবিরে, খুনের মামলায় দোষী সাব্যস্ত ১৮ নেতা-কর্মী

অল্পদিনেই রাজ্যে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে পঞ্চায়েত নির্বাচন। এমন সময়ে হঠাৎ একটা অস্বস্তিকর অবস্থার মধ্যে পড়লো রাজ্যের বাম শিবির। আদালত সূত্রে জানা গেছে ২০১০ সালের ১৪ই সেপ্টেম্বর বর্ধমান জেলার জামালপুরের মুইদিপুর পচা মার্কেট এলাকায় সশস্ত্র সিপিএম সমর্থকরা মিলন মালিকের নেতৃত্ব  তৃণমূল সমর্থকদের উপর আক্রমন করে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এই ঘটনায় গুরুতর জখম হলে সাহেব সাঁতরা, শ্যামাপদ দে, শ্যামল দাস, শৈলেন কর্মকার, অনিল মালিক ও দীনবন্ধু সাঁতরা প্রমুখ ব্যক্তিকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঐ দিন সিপিএম কর্মী সমর্থকরা এলাকার বেশ কিছু তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীর বাড়িতেও ভাঙচুর চালায় এবং অগ্নি সংযোগ করে।  গ্রামের তৃণমূল নেতা পাঁচু দাস এবং অমরপুর গ্রামের ঈশা মল্লিককে তুলে নিয়ে গিয়ে হত্যা করা হয়। এই ঘটনায় অভিযুক্তদের নামে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়। এত বছর পরে মঙ্গলবার বর্ধমান আদালত ১৮ জন সিপিএম সমর্থক ও নেতাকে দোষী সাব্যস্ত করেছে। আজ বুধবার বর্ধমান আদালতের প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা বিচারক শেখ মহম্মদ রেজা অপরাধীদের শাস্তি ঘোষণা করবেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!